ভারতে হামলা চালাতে স্থানীয় গ্যাংস্টারদের দিকে নজর, রাওলপিন্ডিতে জইশের সঙ্গে গোপন বৈঠকে আইএসআই

First Published 25, Aug 2020, 1:48 PM

ফের এদেশে বড়সড় সন্ত্রাসবাদী হামলার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান। ভারতীয় গোয়েন্দাদের রিপোর্টে এমন আশঙ্কার খবরি উঠে এসেছে। গোয়েন্দাদের কাছে খবর, সম্প্রতি রাওলপিন্ডিতে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। পাশাপাশি এদেশে নাশকতার  ছক কষতে ভারতীয় গ্যাংস্টারদের সাহায্য নিচ্ছে আইএসআই।

<p><strong>ভারতীয় গোয়েন্দা দফতরের কাছে খবর গত ২০ আগস্ট স্ট পাকিস্তানের রাওলপিণ্ডিতে জইশ-ই-মহম্মদের নেতা মৌলানা আবদুল রউফ আশগরের সঙ্গে বৈঠক করে &nbsp;আইএসআই-এর দুই শীর্ষ অফিসার। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা আশগরের ভাই আম্মারও।&nbsp;</strong></p>

ভারতীয় গোয়েন্দা দফতরের কাছে খবর গত ২০ আগস্ট স্ট পাকিস্তানের রাওলপিণ্ডিতে জইশ-ই-মহম্মদের নেতা মৌলানা আবদুল রউফ আশগরের সঙ্গে বৈঠক করে  আইএসআই-এর দুই শীর্ষ অফিসার। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা আশগরের ভাই আম্মারও। 

<p><strong>পাকিস্তানের বালাকোটে &nbsp;ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইকের পরে একটি অডিয়ো রিলিজ করেছিল মৌলানা আম্মার। সেই অডিয়ো বার্তায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কড়া সমালোচনা কর হয়েছিল। ভারতীয় বিমান বাহিনীর &nbsp;উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে পাকিস্তান মুক্তি দেওয়ায় ইমরানের খানের সমালোচনা করে আম্মার।&nbsp;</strong></p>

পাকিস্তানের বালাকোটে  ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইকের পরে একটি অডিয়ো রিলিজ করেছিল মৌলানা আম্মার। সেই অডিয়ো বার্তায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কড়া সমালোচনা কর হয়েছিল। ভারতীয় বিমান বাহিনীর  উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে পাকিস্তান মুক্তি দেওয়ায় ইমরানের খানের সমালোচনা করে আম্মার। 

<p><strong>ঠিক কী বিষয়ে আলোচনা করতে এরা জরুরি বৈঠকে বসেছিল তা জানার চেষ্টা করছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা।&nbsp;</strong></p>

ঠিক কী বিষয়ে আলোচনা করতে এরা জরুরি বৈঠকে বসেছিল তা জানার চেষ্টা করছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। 

<p><strong>দেশের এক সিনিয়র গোয়েন্দা আধিকারিক জানাচ্ছেন, &nbsp; রাওলপিন্ডির বৈঠকের পর ইসলামাবাদে জইশ-ই-মহম্মদের বিশেষ সভা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিল জইশের অপারেশাল কম্যান্ডার মুফতি আশগর খান কাশ্মীরি এবং কুয়ারি জারার। ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামালোর চালানোর ওপরেই আলোচনা করে দু'তরফের। হামলার কোনও একটি পরিকল্পনা প্রায় শেষের পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে বলেও জানা গিয়েছে।</strong></p>

দেশের এক সিনিয়র গোয়েন্দা আধিকারিক জানাচ্ছেন,   রাওলপিন্ডির বৈঠকের পর ইসলামাবাদে জইশ-ই-মহম্মদের বিশেষ সভা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিল জইশের অপারেশাল কম্যান্ডার মুফতি আশগর খান কাশ্মীরি এবং কুয়ারি জারার। ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামালোর চালানোর ওপরেই আলোচনা করে দু'তরফের। হামলার কোনও একটি পরিকল্পনা প্রায় শেষের পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে বলেও জানা গিয়েছে।

<p><strong>এই বৈঠককে কী আলোচনা হয়েছে তা এখন জানতে মরিয়া ভারতীয় &nbsp;গোয়েন্দারা। পাকিস্তানের এই বিশেষ কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী নেতাই পুলওয়ামার হামলার ঠিক এক মাস আগে বৈঠক করেছিল। এবারও তেমন কিছুর পরিকল্পনা চলছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা।</strong></p>

এই বৈঠককে কী আলোচনা হয়েছে তা এখন জানতে মরিয়া ভারতীয়  গোয়েন্দারা। পাকিস্তানের এই বিশেষ কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী নেতাই পুলওয়ামার হামলার ঠিক এক মাস আগে বৈঠক করেছিল। এবারও তেমন কিছুর পরিকল্পনা চলছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা।

<p><strong>জইশ প্রধান মৌলানা মাসুদ আজহার কঠিন অসুখে আক্রান্ত হওয়ার পর এই গোষ্ঠীর নেতৃত্ব দিচ্ছে তার ভাই মৌলানা আবদুল রউফ আশগার ওরফে মারা। ভারতীয় গোয়েন্দারা যে প্রথম পাঁচজন সন্ত্রাসবাদীর ওপরে নজর রেখেছেন তার মধ্যে রয়েছে এই মারাও। ভারতে বড় হামলা চালানোর জন্য জইশ-ই-মহম্মদ মরিয়া হয়ে উঠেছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর।</strong></p>

জইশ প্রধান মৌলানা মাসুদ আজহার কঠিন অসুখে আক্রান্ত হওয়ার পর এই গোষ্ঠীর নেতৃত্ব দিচ্ছে তার ভাই মৌলানা আবদুল রউফ আশগার ওরফে মারা। ভারতীয় গোয়েন্দারা যে প্রথম পাঁচজন সন্ত্রাসবাদীর ওপরে নজর রেখেছেন তার মধ্যে রয়েছে এই মারাও। ভারতে বড় হামলা চালানোর জন্য জইশ-ই-মহম্মদ মরিয়া হয়ে উঠেছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর।

<p><strong>জানা যাচ্ছে উপত্যকায় নতুন ভাবে সন্ত্রাস ছড়াতে চাইছে পাকিস্তান। এই কাজে তারা ব্যবহার করতে চাইছে স্থানীয় গ্যাংস্টারদের। কাশ্মীরে আইন শৃঙ্খলার স্থিতাবস্থা আইএসআই এভাবেই নষ্ট করার ছক করেছে বলে খবর।</strong><br />
&nbsp;</p>

জানা যাচ্ছে উপত্যকায় নতুন ভাবে সন্ত্রাস ছড়াতে চাইছে পাকিস্তান। এই কাজে তারা ব্যবহার করতে চাইছে স্থানীয় গ্যাংস্টারদের। কাশ্মীরে আইন শৃঙ্খলার স্থিতাবস্থা আইএসআই এভাবেই নষ্ট করার ছক করেছে বলে খবর।
 

<p><strong>চণ্ডিগড় ইন্টেলিজেন্স বলছে, ভারতের বেশ কয়েকজন গ্যাংস্টারের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছে পাকিস্তান। যে সমস্ত গুণ্ডা মস্তানদের আওতায় স্থানীয় এলাকাগুলি রয়েছে, তাদের টার্গেট করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা।</strong></p>

চণ্ডিগড় ইন্টেলিজেন্স বলছে, ভারতের বেশ কয়েকজন গ্যাংস্টারের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছে পাকিস্তান। যে সমস্ত গুণ্ডা মস্তানদের আওতায় স্থানীয় এলাকাগুলি রয়েছে, তাদের টার্গেট করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা।

<p><strong>গোয়েন্দাসূত্রের দাবি, ইতিমধ্যেই একাধিক গ্যাংস্টারকে নাশকতার নির্দেশ দিতে শুরু করে দিয়েছে পাকিস্তান। ইতিমধ্যেই দেশের ৫ টি তাবড় গ্যাংস্টারকে পাকিস্তানের আইএসআই নির্দেশ দিয়েছে দেশের বেশ কয়েকজন নেতাকে হত্যা করার।</strong><br />
&nbsp;</p>

গোয়েন্দাসূত্রের দাবি, ইতিমধ্যেই একাধিক গ্যাংস্টারকে নাশকতার নির্দেশ দিতে শুরু করে দিয়েছে পাকিস্তান। ইতিমধ্যেই দেশের ৫ টি তাবড় গ্যাংস্টারকে পাকিস্তানের আইএসআই নির্দেশ দিয়েছে দেশের বেশ কয়েকজন নেতাকে হত্যা করার।
 

<p><strong>যে গ্যাংস্টারদের খবর পুলিশের হাতে রয়েছে , তাদের মধ্যে ২ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বাকি ৩ জন আপাতত জেলবন্দি বলে খবর। এই গ্যাংস্টারদের সঙ্গে পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদীরা যোগেযাগ রেখে চলেছে বলে খবর আসতেই, একাধিক প্রশ্ন উঠছে।</strong></p>

যে গ্যাংস্টারদের খবর পুলিশের হাতে রয়েছে , তাদের মধ্যে ২ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বাকি ৩ জন আপাতত জেলবন্দি বলে খবর। এই গ্যাংস্টারদের সঙ্গে পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদীরা যোগেযাগ রেখে চলেছে বলে খবর আসতেই, একাধিক প্রশ্ন উঠছে।

<p><strong>মোটা টাকার বিনিময়ে গ্যাংস্টারদের কাজে লাগানো হচ্ছে। এই ধরণের গ্যাংস্টাররা মাদক পাচার, অস্ত্র পাচার, ডাকাতি, খুন, রাহাজানির মতো অপরাধের সঙ্গে জড়িত। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের ওপর নির্দেশ এই সব গ্যাংস্টারদের খোঁজখবর রাখতে হবে। তাদের ট্র্যাক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।</strong></p>

মোটা টাকার বিনিময়ে গ্যাংস্টারদের কাজে লাগানো হচ্ছে। এই ধরণের গ্যাংস্টাররা মাদক পাচার, অস্ত্র পাচার, ডাকাতি, খুন, রাহাজানির মতো অপরাধের সঙ্গে জড়িত। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের ওপর নির্দেশ এই সব গ্যাংস্টারদের খোঁজখবর রাখতে হবে। তাদের ট্র্যাক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

<p><strong>এর আগে ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে &nbsp;জানা গিয়েছিল, &nbsp;আন্তর্জাতিক সীমান্ত ধরে ড্রোন উড়িয়ে বোমা বিস্ফোরণের ছক কষেছে পাকিস্তান। জানা যায় কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সেনা ঘাঁটিগুলিকে নিশানা করেছে পাকিস্তান। সেই ঘাঁটিতে বোমা ফেলবে পাক ড্রোন, এমন পরিকল্পনা করা হয়েছে।</strong></p>

এর আগে ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে  জানা গিয়েছিল,  আন্তর্জাতিক সীমান্ত ধরে ড্রোন উড়িয়ে বোমা বিস্ফোরণের ছক কষেছে পাকিস্তান। জানা যায় কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সেনা ঘাঁটিগুলিকে নিশানা করেছে পাকিস্তান। সেই ঘাঁটিতে বোমা ফেলবে পাক ড্রোন, এমন পরিকল্পনা করা হয়েছে।

<p><strong>বর্ডার সিকিওরিটি ফোর্সের সূত্র জানায় কাশ্মীরের আরএস পুরা ও সাম্বা সেক্টরে বোমা ফেলার ছক কষেছে পাক সেনা। এই পরিকল্পনা সফল করতে মদত করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইও। শুধু তাই নয়, উপত্যকায় জঙ্গিদের হাতে মাদক, অস্ত্র ও বিস্ফোরক পৌঁছনোর জন্য ড্রোনের ব্যবহার করবে পাকিস্তান বলে জানা যায়।</strong><br />
&nbsp;</p>

বর্ডার সিকিওরিটি ফোর্সের সূত্র জানায় কাশ্মীরের আরএস পুরা ও সাম্বা সেক্টরে বোমা ফেলার ছক কষেছে পাক সেনা। এই পরিকল্পনা সফল করতে মদত করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইও। শুধু তাই নয়, উপত্যকায় জঙ্গিদের হাতে মাদক, অস্ত্র ও বিস্ফোরক পৌঁছনোর জন্য ড্রোনের ব্যবহার করবে পাকিস্তান বলে জানা যায়।
 

loader