রাজস্থানে পুরোহিত হত্যার প্রতিবাদ, বসিরহাটে তৃণমূলে যোগদান করলেন শতাধিক পুরোহিত

First Published 13, Oct 2020, 11:18 AM

রাজস্থানে পুরোহিতকে পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদে গর্জে উঠলেন বাংলার পুরোহিতরা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের প্রতি আস্থা রেখে তৃণমূলে যোগদিলেন প্রায় একশোরও বেশি পুরোহিত। বসিরহাট মহকুমার হাড়োয়া ব্লকের গোপালপুরে যোগদান করা পুরোহিতদের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন বিধায়ক হাজী নুরুল ইসলাম। রাজ্যে পুরোহিতদের জন্য ভাতা-বাংলা আবাস যোজনার ঘর থেকে বিশেষ সুযোগ সুবিধা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে ধন্যবাদ জানান পুরোহিতরা।

<p>রাজস্থানে পুরোহিত হত্যার প্রতিবাদে। সরাসরি তৃণমূল দলে যোগ দিলেন পুরোহিতরা। বসিরহাট মহকুমার হাড়়োয়ার গোপালপুরে তৃণমূলে যোগদান করলেন শতাধিক পুরোহিত। রাজ্যস্থানে নৃশংস ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানান তাঁরা।</p>

রাজস্থানে পুরোহিত হত্যার প্রতিবাদে। সরাসরি তৃণমূল দলে যোগ দিলেন পুরোহিতরা। বসিরহাট মহকুমার হাড়়োয়ার গোপালপুরে তৃণমূলে যোগদান করলেন শতাধিক পুরোহিত। রাজ্যস্থানে নৃশংস ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানান তাঁরা।

<p>হাড়োয়ার এক নম্বর গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে ওই পুরোহিতদের হাতে পতাকা তুলে দেন এলাকার বিধায়ক হাজী নুরুল ইসলাম। পুরোহিত ভাতা ও অন্যান্য সরকারি সুবিধার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পুরোহিতরা।</p>

হাড়োয়ার এক নম্বর গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে ওই পুরোহিতদের হাতে পতাকা তুলে দেন এলাকার বিধায়ক হাজী নুরুল ইসলাম। পুরোহিত ভাতা ও অন্যান্য সরকারি সুবিধার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পুরোহিতরা।

<p>তৃণমূল যোগদান করে পুরোহিত দেবাশিস চক্রবর্তী বলেন, ''সামনে দুর্গাপুজো, প্রচুর ব্রাহ্মণ আছেন যাঁরা পুজো করেন। কিন্তু তাঁরা সংস্কৃত ভাষার উপর এতটা দক্ষ নন। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী যেন সংস্কৃত শিক্ষা কেন্দ্র তৈরির ব্যবস্থা করেন। আমরা তাহলে কৃতজ্ঞ থাকব''।</p>

তৃণমূল যোগদান করে পুরোহিত দেবাশিস চক্রবর্তী বলেন, ''সামনে দুর্গাপুজো, প্রচুর ব্রাহ্মণ আছেন যাঁরা পুজো করেন। কিন্তু তাঁরা সংস্কৃত ভাষার উপর এতটা দক্ষ নন। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী যেন সংস্কৃত শিক্ষা কেন্দ্র তৈরির ব্যবস্থা করেন। আমরা তাহলে কৃতজ্ঞ থাকব''।

<p>অন্যদিকে, বিধায়ক হাজী নুরুল ইসলাম বলেন, ''বিগত সরকার পুরোহিতদের দূরাবস্থায় তাঁদের পাশে দাঁড়ায়নি। তৃণমূলে যোগদান করে তাঁরা যোগ্য সম্মান পেয়েছেন। সব সম্প্রদায়ের পাশে রয়েছে রাজ্য সরকার''।</p>

অন্যদিকে, বিধায়ক হাজী নুরুল ইসলাম বলেন, ''বিগত সরকার পুরোহিতদের দূরাবস্থায় তাঁদের পাশে দাঁড়ায়নি। তৃণমূলে যোগদান করে তাঁরা যোগ্য সম্মান পেয়েছেন। সব সম্প্রদায়ের পাশে রয়েছে রাজ্য সরকার''।

<p>তৃণমূলে যোগদান কর্মসূচিতে প্রায় শতাধিক ব্রাহ্মণকে নতুন বস্ত্র প্রদান করা হয়। এছাড়াও, দুর্গা পুজোর আগে রামাবলী পাঁচালি বিতরণ করা হয়।</p>

তৃণমূলে যোগদান কর্মসূচিতে প্রায় শতাধিক ব্রাহ্মণকে নতুন বস্ত্র প্রদান করা হয়। এছাড়াও, দুর্গা পুজোর আগে রামাবলী পাঁচালি বিতরণ করা হয়।

loader