ছোটবেলায় কম বেশি সবারই  কৃমির সমস্যা থাকে, আর বাড়ির খুদে সদস্যরাও সেই সমস্যায় প্রায়ই ভুগে থাকে। এই সমস্যা কীভাবে বুঝবেন আপনি-

আরও পড়ুনঃ সারা দিন শরীরে ক্লান্তিভাব অনুভব করেন, তবে কী এই ঘাটতি আপনার মধ্যেও রয়েছে, সাবধান.

  • ছোটো ছেলে মেয়েদের মাঝেমধ্যে তলপেট ব্যথা হলে সাবধান হন। এটি কৃমির সমস্যার প্রধান উপসর্গ।
  • গ্যাসের সমস্যা বা তলপেট ভার থাকা।
  • ডাইরিয়ার মত শারীরিক অসুস্থতা।
  • বমি হওয়া বা গা গোলানো ভাব থাকা।
  • আচমকা ওজন কমে যাওয়া।
  • মলের মধ্যে সাদা কৃমির উপস্থিতি।
  • মলদ্বারে চুলকানি হওয়া বিশেষত রাতের বেলায় চুলকানি বা অসোয়াস্তিভাব থাকা।

ঘরোয়া পদ্ধতিতে কৃমির সমস্যা কমাতে আপনার খুদের খাবারের তালিকায় এই খাবারগুলি অবশ্যই রাখবেন, যা দিয়ে সহজেই আপনার সন্তান এই সমস্যা  থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে। 

  • রসুন

ঘরোয়া উপায়ে কৃমির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রসুন খাওয়ান আপনার সন্তানকে। শুধুমাত্র কৃমির সমস্যা না রসুন খেলে কমে সর্দি কাশির ধাত। এই সবজিটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত হওয়ায় খাদ্যনালী ও পাঁচন তন্ত্র পরিষ্কার রাখে ও ক্ষুদ্রান্ত্রে কৃমির সমস্যা কমায়। বাড়ির ছোট্টো সদস্যটির শরীর সুস্থ রাখতে তরকারীতে রসুন দিয়ে রান্না করুন।

  • আদা

আদা ক্ষুদ্রান্ত্রে জন্মানো কৃমি মারতে ও পাঁচন তন্ত্রের কার্য ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

  • পেঁপের দানা

গবেষণায় দেখা গেছে পেঁপের দানা ফিতা কৃমি ও অন্যান্য কৃমির সমস্যা কমাতে সাহায্যকারী।  

  • কুমড়োর দানা

কুমড়োর দানায় কৃমিনাশক গুণ থাকায় ফিতা কৃমি ও পিনওয়ার্মের সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।