সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কে নাজেহাল বিশ্ববাসী। আতঙ্কের আরেক নাম করোনা। করোনা রুখতে চলছে  হাজারো প্রচেষ্টা। একটানা লকডাউনের পথেই হাঁটছে গোটা বিশ্ব। যত দিন যাচ্ছে মৃত্যুমিছিল যেন ত্রমশ বাড়ছে। তবে বিশ্বজুড়ে যে করোনাভাইরাসের মহামারী চলছে, তাতে অনেককেই গ্রাস করছে মানসিক অবসাদ। সারাদিন অঢেল সময়। কী করবেন কিছুই বুঝে পাচ্ছেন না। অগত্যা ঘুমকেই নিজের সঙ্গী করে নিচ্ছেন। 

আরও পড়ুন-লকডাউনে জামাইষষ্ঠী, কব্জি ডুবিয়ে খেতে বসার আগে চোখ রাখুন এই টিপসে...

অনেকেই আছেন যারা ঘুমোতে ভীষণ ভালবাসেন। যখনই সুযোগ পান অমনি একটু ঘুমিয়ে নেন। আর লকডাউনের ফলে সেই সুযোগ অনেকেই হাত ছাড়া করতে চান না। সারদিনে কোনও কাজ না থাকার ফলে ঘুমিয়েই সময় কাটাচ্ছেন অনেকে।  সিনেমা দেখতে দেখতেও একঘেয়েমি চলে আসছে। ব্যস অমনি একটু ঘুম। আবার খেয়ে উঠে হালকা ঘুম পাচ্ছে অমনি ভাতঘুম। আর বাঙালি মানেই ভাতঘুম। কিন্তু এই ঘুমই শরীরে ডেকে আনছে বিপদ। শরীর ভাল রাখার জন্য যেমন ঘুম দরকার। তেমনই পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমই শরীরকে সুস্থ রাখে।

আরও পড়ুন-ফাঁস হল জনপ্রিয় অভিনেত্রীর 'ফিটনেস সিক্রেট', নেটদুনিয়ায় উপচে পড়ছে ভিড়...

বেশি ঘুমের জন্য শরীরের বিশেষ ক্ষতি হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গেছে, যারা দিনে ৯ ঘন্টা ও তার বেশি কথা বলে তাদের মধ্যে বিষন্নতার ঝুঁকি বেড়ে যায়। বেশি ঘুম মস্তিষ্কের কাজ করার ক্ষমতা হ্রাস করে। রাতে আট ঘন্টার বেশি ঘুম রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা হারায়। এবং যার ফলে টাইপ ২ ডায়াবেটিসের আশঙ্কা বেড়ে যায়। শুধু তাই নয়, বেশি ঘুমোলে হৃদরোগেরও সমস্যা দেখা দিতে পারে। এবং অনিয়ন্ত্রিত ঘুমের ফলে ওজনও বাড়ার ভয় থাকে।