অধিকাংশ ছেলে মেয়েরাই এখন লেখা পড়ার জন্য বিদেশে চলে যায়। শুধু তাই নয় নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতেও বায়রে চলে যায়। আর এই ছেলে মেয়েরা বিদেশে চলে যাওয়ার পরে অনেক মা-বাবাই নানান সমস্যায় ভোগেন। মানোসিক অবসাদেও ভোগেন অনেকেই। এই সমস্যাকেই 'Empty nest Syndrome' বলা হয়।

এই অসুখে মানুষ একাকিত্বে ভোগে। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায় ছেলে-মেয়েরা মা-বাবাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার পরেই মা বাবারা এই সমস্যায় ভোগেন। এটা এক ধরনের মানসিক অবসাদ বলাই যায়। এই অসুখে বেশ কিছু উপসর্গ লক্ষ্য করা যায়, তার মধ্যে রয়েছে- 

রাগ- এই অসুখের একটি বড় উপসর্গ রাগ। অল্পতেই রেগে যাওয়ার লক্ষণ দেখা যায় এই সমস্যায় ভুগলে। এছাড়াও মানুষ বিরক্ত বোধ করে এই সমস্যার কারণে।

দুঃখ- এই সমস্যার একটি আরও বড়ও লক্ষণ দুঃখ এবং হতাশা। এই সমস্যায় থাকলে দুঃখ এবং হতাশা সব সময়ের সঙ্গী হয়ে যায় বলাই যায়।

নিজের পরিচয় ভুলে যাওয়া- এই সমস্যায় পড়ে অনেকে আবার নিজের পরিচয়ও ভুলে যায়। 

অনিদ্রা- অনিদ্রা এবং দুঃস্বপ্ন দেখা এই সিনড্রোমের আরও একটি লক্ষণ। মা-বাবার তাঁর সন্তানের প্রতি চিন্তা থেকেই এই সমস্যা দেখা যায়।

এই সিনড্রম থেকে মুক্তি পেতে মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি- যখনই আপনি এই লক্ষণ গুলির মধ্যে একটি লক্ষণও দেখতে পাবেন তখনই সচেতন হন। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে মাথায় রাখুন এই বিষয় গুলি।

সন্তানের সঙ্গে যোগাযোগ করুন- নিয়মিত সন্তানের সঙ্গে যোগাযোগ রাখুন, এতে কিছুটা হলেও এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। নিয়মিত আপনার সন্তানকে ফোন করুন বা ভিডিও কল করুন, এতে মনও ভালো থাকবে।

পজিটিভ চিন্তা করুন সবসময়- সব সময় পজেটিভ চিন্তা করার চেষ্টা করুন, এতে মনও ভালো থাকে। নিজেকে সবসময় রান্না বা যে কাজ করতে আপনার ভালো লাগে সেই কাজে ব্যস্ত রাখুন।