প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে এই মারণ ভাইরাসে। সারা বিশ্বে লক্ষাধিক মানুষের প্রাণ কেড়েছে কোভিড-১৯। দেশজুড়ে চলছে লকডাউন ৫.০। তবে লকডাউন শিথিল হওয়ার জন্য বাইরে বেড়োচ্ছে মানুষেরা। খুলে গিয়েছে প্রচুর অফিস, ধর্মীয় স্থান, শপিং মল। ফলে দিনে দিনে বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতিতে বাইরে যাওয়ার ফলে আপনার করোনায় আক্রান্ত হওয়া ঝুঁকি থেকে যায়। তাই বাইরে গেলে নিরাপদে থাকতে কোনটি বিশেষ সাহায্য করবে ফেস মাস্ক না ফেস সিল্ড। এই বিষয়ে কি বলছে বিশেজ্ঞরা।

ফেস সিল্ড-

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা ভাইরাস মূলত মুখ, চোখ ও নাক দিয়ে শরীরের মধ্যে প্রবেশ করে ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়। ফলে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে অনেকেই বিশেষ চশমা ব্যবহার করছেন। আর যদি ফেস শিল্ড ব্যবহার করা হয় ফলে সেটি পুরো মুখ ঢাকা থাকার ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়। আর ফেস শিল্ড ব্যবহারের আরও একটি সুবিধা হল এটি স্যানিটাইজ করে নেওয়া যায়। ফলে ব্যবহারের পর ফেলে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। আবার পরিষ্কার করে নিয়ে পুনঃব্যবহার করা যায়।

ফেস মাস্ক-

বিশেষজ্ঞদের মতে, মাস্ক ব্যবহার করলে অবশ্যই ট্রিপল লেয়ার যুক্ত মাস্ক ব্যবহার করা উচিত। পাশাপাশি সামাজিক দূরত্বও বজায় রাখা প্রয়োজন। তবে মাস্ক খোলা, পড়া ও স্যানিটাইজ করার বিষয়ে বিশেষ কিছু বিষয় অবলম্বন করা প্রয়োজন। সেগুলি সঠিকভাবে না হলে সংক্রমণের ঝুঁকি বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা থাকে। 

নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে তাই আপনি ফেস মাস্ক বা ফেস শিল্ড দুটোই ব্যবহার করতে পারেন। তবে পাশাপাশি ভাবে আপনাকে অবশ্যই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। তবে ফেস শিল্ড ব্যবহার করলেও পাশাপাশি মাস্ক ব্যবহার করাও প্রয়োজন। কারণ ফাঁকা অংশ থেকে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। ফলে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ফেস শিল্ডের সঙ্গে অবশ্যই মাস্ক পরুন। সতর্কতা অবলম্বন করুন এবং সুস্থ থাকুন।