আবার সন্ত্রাসের ছায়া দেশে। মহারাষ্ট্রের গড়চিড়ৌলি-তে মাওবাদী হামলায় বুধবার প্রাণ হারালেন ১৫ জন সেনা। ভোটের মাঝেই এই ভয়াবহ সন্ত্রাসে আতঙ্কিত সারা দেশ।

জানা গিয়েছে, মহারাষ্ট্রের গড়চিড়ৌলির কুরখেদা থেকে ৬ কিলোমিটার দূরে রাজ্য সড়কের উপরে এই নাশকতা চালায় মাওবাদীরা। এই রাস্তায় আগে থেকেই মাওবাদীরা আইইডি বিস্ফোরক পুঁতে রেখেছিল। সেই বিস্ফোরণেই উড়ে যায় সি-৬০ সেনাদের গাড়ি। 

ওই গাড়িতে থাকা ১৫ জন সেনাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিত্সকরা। এদের মধ্যে গাড়ির চালকও ছিলেন। বিস্ফোরকটি এতই শক্তিশালী ছিল যে গাড়িটি টুকরো টুকরো হয়ে যায়। শুধু তাই নয়। গাড়িটি ও আহত সেনাদের লক্ষ্য় করে গুলি চালাতে থাকে গেরিলারা। 

তবে ঘটনার সূত্রপাত এখানেই নয়। বুধবার একদম ভোরের দিকে ১৫০ জন মাওবাদীর একটি দল এই এলাকায় দাপিয়ে বেড়ায়। প্রায় ৩৬ টি গাড়ি জ্বালিয়ে দেয় তারা। রাস্তা নির্মাণ করার যন্ত্রপাতি ও গাড়ি ধ্বংস করে। এই খবর পেয়েই সেনাদের দল ঘটনাস্থলের দিকে যাচ্ছিল। তখনই এই ভয়াবহ নাশকতায় নিহত হতে হয় তাঁদের। 

গত রবিবার একটি পোস্টারের মাধ্যমে হুমকি দিয়েছিল এই গেরিলারা। পোস্টারে লেখা ছিল, ৪০ জন গেরিলার মৃত্য়ুর বদলা নেওয়া হবে। এই হুমকি পাওয়ার পরেও, এবং নিবার্চনের মাঝে মহারাষ্ট্র দিবসের দিন কীভাবে এই নাশকতা চালাল মাওবাদীরা তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।