জইশ ই মহম্মদের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত তিন জঙ্গিকে নিকেশ করল ভারতী জওয়ানরা। বুধবার সকালে স্থানীয় প্রশাসনের তরফ থেকে এই খবর জানান হয়েছে। জঙ্গিদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে গুরুতর জখম হয়েছেন ভারতের এক নিরাপত্তা রক্ষী। সেনা সূত্রে জানান হয়েছে নিহতদের মধ্যে এক জন দক্ষিণ কাশ্মীরে সক্রিয় জইশ নেতা রয়েছেন। স্থানীয়দের কথায় নিহত জঙ্গির নির্দেশেই সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ চলত এলাকায়। 

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেনা বাহিনী, স্থানীয় পুলিশ আর সিআরপিএফ-এর যৌথ উদ্যোগে অভিযানে নেমেছিল জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায়। তাতেই আসে এই সাফল্য। গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই জেলায় এটাই ছিল দ্বিতীয় এনকাউন্টার। মঙ্গলবার ত্রালে এনকাউন্টারের সময় দুই জঙ্গিকে নিকেশ করা হয়েছিল।

বাজি ভর্তি আনারস খাইয়ে গর্ভবতী হাতিকে হত্যা, নৃশংসতার চরম নিদর্শন কেরলে ...

উপত্যকায় আবারও সাফল্য ভারতীয় সেনার, এনকাউন্টারে হত ১৩ জঙ্গি ...  

করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা পায়নি রাশিয়া, এবার নতুন বিদপ রক্ত চোষা কীটের তাণ্ডব .

গত সোমবারই সেনাবাহিনী সূত্রে জানান হয়েছিল তিন সশস্ত্র জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছে। সেই সময় রাজৈরি জেলার সীমান্ত জঙ্গিদের সঙ্গে গুলিবিনিময়ে শুরু হয় ভারতীয় সেনার। পরে সেনা সূত্রে দাবি করা হয়ে তিন জঙ্গিকে তাঁরা নিকেশ করেছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও দেহ উদ্ধার হয়নি। 

গত সপ্তাহেই পুলওয়ামা থেকে উদ্ধার হয়েছিল গাড়ি ভর্তি বিস্ফোরক। আনুমানিক ৪০-৪৫ কেজি বিস্ফোরক মজুর করা হয়েছিল। জঙ্গিদের নাশকতার ছক বানচাল করে দিয়েছিল ভারতীয় সেনা। কিছুতেই থামতে চাইছে না প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত পাক জঙ্গিরা। একের পর এক নাশকতার ছক তৈরি করেছে তারা। সীমান্ত চুক্তি লঙ্ঘন করে বারবার ভারতীয় মূলভূখণ্ডে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গোয়ান্দা সূত্রের খবর করোনার এই সংকটের সময়ই পাকিস্তান ভারতে হামলা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। যা প্রতিহত করতে সর্বদা সতর্ক রয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিনী।