ইতিহাস সৃষ্টির দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশ, কিন্তু তীরে এসে তরী ডুবল এতদিনের প্রচেষ্টার। চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিলোমিটার দূরে ছিল ল্য়ান্ডার বিক্রম আর তার পরই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ইসরোর। এক রাশ মন খারাপ নেমে এল গোটা দেশের বুকে। 

তবুও কিন্তু ইসরোর বিজ্ঞানীদের গত কয়েকদিনের নিরন্তর প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাল টুইটার। ভারতীয় বৈজ্ঞানিকদের অক্লান্ত পরিশ্রমকেই কুর্নিশ করল সারা ভারত। চাঁদের মাটিতে চন্দ্রযান-২-কে পৌঁছে দিতে বিজ্ঞানীদের নিরলস প্রচেষ্টাকেই সাধুবাদ জানাতেই ভেসে এল অসংখ্য টুইট। 

এদিন বিজ্ঞানীদের উৎসাহ দিতে প্রধানমন্ত্রী টুইট করে বলেন, 'আমাদের বিজ্ঞানীদের জন্য ভারত গর্বিত। তাঁরা তাঁদের সেরাটা দিয়েছেন এবং সবসময়েই ভারতকে গর্বিত করেছেন। ইসরোর চেয়ারম্যান চন্দ্রযান-২ সম্পর্কে আপডেট দিয়েছেন। আমরা ভরসা রাখব এবং আমাদের মহাকাশের কার্যকলাপ চালিয়ে যাব'। 

পাশাপাশি কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও সাধুবাদ জানান ইসরোর প্রচেষ্টাকে। তিনি এদিন টুইট করে লেখেন,' চন্দ্রাভিযান নিয়ে ইসরোর বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন।  আপনাদের আবেগ ও একাগ্রতা প্রত্যেক ভারতবাসীর কাছে প্রেরণাস্বরূপ। আপনাদের কাজ ব্যর্থ হবে না। অনেক কিছুর পথ খুলে দিয়েছে এই অভিযান যা ভবিষ্যতের মহাকাশ কার্যকলাপের ক্ষেত্রে সাহায্য করবে।'

প্রসঙ্গত, চাঁদের বুকে পা রাখতে ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রাভিযান ছিল চন্দ্রযান-২। ইসরোর জটিল অভিযানগুলির মধ্যে অন্যতম ছিল এটি। যদিও তাঁরা আশাহত হয়েছেন। তাঁদের উৎসাহ দিতে টুইট করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তিনি লেখেন, 'আমরা সকলেই রয়েছি ইসরোর পাশে। আপনাদের কৃতিত্ব দেশের নবপ্রজন্মের মনে স্থান পেয়েছে, একদিন সাফল্য আসবেই। '

'আপনাদের নিয়ে গর্বিত গোটা দেশ', ইসরোর বিজ্ঞানীদের উদ্বুদ্ধ করলেন প্রধানমন্ত্রী

যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বিক্রম ল্যান্ডার-এর থেকে, থমথমে ইসরোর বিজ্ঞানীদের মুখ, সাহস জোগালেন প্রধানমন্ত্রী

পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টুইট করে জানিয়েছেন,  বলেন, 'ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র চন্দ্রযান-২-কে যে এতটা সাফল্যের পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে পেরেছে, সেটাই তাঁদের বিরাট সাফল্য। কঠোর পরিশ্রমী বিজ্ঞানীদের পাশে রয়েছে ভারত, ভবিষ্যতের জন্য আমার অনেক শুভেচ্ছা রইল।'