ফাঁড়া কেটে গেছে অমিত শাহ। এক সপ্তাহ চিকিৎসার পর বর্তমানে তিনি করোনা  নেগেটিভ, এই তথ্যই সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন অমিত শাহ সহকর্মী মনোজ তিওয়ারি। তিনি বলেন, নমুনা পরীক্ষায় তাঁর রিপোর্ট নেগেটি এসেছে। 

গত সপ্তাহে অর্থাৎ দোশরা অগাস্ট অমিত শাহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি ভর্তি হয়েছিলেন গুরুগ্রামের মেদান্ত হাসপাতালে। আর আক্রান্ত হওয়ার কথা নিজেও সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছিলেন অমিত শাহ। তিনি লিখেছিলেন প্রাথমিক উপসর্গ থাকায় নিজের উদ্যোগেই নমুনা পরীক্ষা করিয়েছিলেন। তাতেই জানা গিয়েছিল তিনি করোনা পজেটিভ। তারপরই তিনি ভর্তি হয়েছিলেন বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানেই গত একসপ্তাহ ধরে চিকিৎসা চলছিল তাঁর। 


গত রবিবার আক্রান্ত হওয়ার আগের বুধবারই অমিত শাহ মন্ত্রিসভার বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংসহ একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। তাই অমিত শাহর সংস্পর্শে কেউ এসেছিলেন কিনা তাই খতিয়ে দেখা হয়। যদিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা হয়েছিল। 


যদিও হাসপাতালে থাকা অবস্থাতেও দেশের পরিস্থিতি নিয়ে যথেষ্ট সক্রিয় ছিলেন অমিত শাহ। কেরলের ভূমি ধসে মৃত্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন। পাশাপাশি এদিনও অন্ধ্র প্রদেশের হোটেলে অগ্নিদদ্ধ মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। এদিন সকালেই অন্ধ্র প্রদেশের একটি হোটেলে আগুন লেগে গিয়েছিল। তাঁকে বেশ কয়েকজন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়। অন্ধ্রের একটি সরকারি হাসপাতালে হোটেল বুক করে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যবহস্থা করেছিলেন।