প্রথমে শিবসেনা, তারপর শিরোমণি অকালি দল। গত এক বছরের মধ্য়ে পরপর এনডিএ-র দুই পুরোনো ও শক্তিশালি সঙ্গী জোট ছেড়ে বেরিয়ে গেল। তারপর কি আর এনডিএ আগের মতো শক্তিশালী থাকবে? রবিবার রাতে শিরোমণি অকালি দল বিজেপি-র নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট থেকে সরে আসার পরই এই নিয়ে বিজেপিকে ঠুকতে ছাড়লেন না শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত।

রবিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সঞ্জয় রাউত বলেছেন, এনডিএর শক্তিশালী দুই স্তম্ভ ছিল শিবসেনা এবং অকালি দল। বিজেপির সঙ্গে একসঙ্গে তারা যেমন ক্ষমতাতে ছিল, তেমন বিরোধী আসনেও ছিল। শিবসেনা এনডিএ থেকে বেরিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছিল বলে দাবি করেছেন তিনি। ১৯৯৬ সাল থেকে বিজেপির সঙ্গে থাকার পর, এখন অকালি দল-ও সঙ্গ ছেড়ে দিল। এরপরই শিবসেনা নেতা বিজেপির বর্তমান নেতৃত্বকে তীব্র আক্রমণ করে বলেন, 'এনডিএ এখন নতুন সঙ্গী পেয়েছে, আমি তাদের সকলের মঙ্গল কামনা করি। শিবসেনা ও অকালি দল নেই, এমন জোটকে আমি এনডিএ হিসাবেই বিবেচনা করি না'।

২০১৯ সালের নভেম্বরে, মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচনের পর ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বে এনডিএ থেকে বেরিয়ে গিয়েছিল শিবসেনা। তাদের অভিযোগ ছিল নির্বাচন পূর্ববর্তী শর্ত, নির্বাচনের পর মানেনি বিজেপি। গত সপ্তাহে কৃষি বিল নিয়ে বিতর্কে শিরোমণি অকালী দল মোদী মন্ত্রীসভা ত্যাগ করেছিল। এরপর রবিবার 'কৃষকদের ফসলের এমএসপি সুরক্ষিত করার জন্য বিধিবদ্ধ আইনী নিশ্চয়তা দিতে কেন্দ্রীয় সরকারের অস্বীকার' এবং 'শিখ ও পাঞ্জাবি ইস্যুতে অসংবেদনীল মনোভাব'-এর অভিযোগ করে এনডিএ ছাড়ার কথা ঘোষণা করে অকালি দল।