হোটেলের অতিথিদের ‘বিশেষ সার্ভিস’ দিতে বলা হয়েছিল অঙ্কিতাকে, জলে ডুবে গেলেও কেন তাঁর দেহে মিলল আঘাতের চিহ্ন?

| Sep 25 2022, 03:11 PM IST

হোটেলের অতিথিদের ‘বিশেষ সার্ভিস’ দিতে বলা হয়েছিল অঙ্কিতাকে, জলে ডুবে গেলেও কেন তাঁর দেহে মিলল আঘাতের চিহ্ন?
হোটেলের অতিথিদের ‘বিশেষ সার্ভিস’ দিতে বলা হয়েছিল অঙ্কিতাকে, জলে ডুবে গেলেও কেন তাঁর দেহে মিলল আঘাতের চিহ্ন?
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

অঙ্কিতাকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে রিসর্ট মালিক তথা উত্তরাখণ্ডের বিজেপি নেতার ছেলে পুলকিতের বিরুদ্ধে। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট আসার আগেই বিতর্কিত রিসর্টটিকে ভেঙে দিয়েছে উত্তরাখণ্ড সরকার। 

উত্তরপ্রদেশের রিসর্টে ১৪ দিন কাজ করার পর থেকেই অস্বস্তি বাড়ছিল অঙ্কিতা ভাণ্ডারির। কাজ নিয়ে বিচলিতও ছিলেন। এমনটাই দাবি করেছেন তরুণীর এক ঘনিষ্ঠ। তাঁর দাবি, কাজের প্রতি এতটাই বীতশ্রদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন যে, ১০ সেপ্টেম্বর এক পরিচিতের কাছে অন্যত্র কাজ খুঁজে দেওয়ার জন্য অনুরোধও করেছিলেন অঙ্কিতা। 

মাত্র ২২ দিন অঙ্কিতা কাজ করেছিলেন ওই রিসর্টে। প্রথম বেতন পাওয়ার আগেই তাঁকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে রিসর্ট মালিক তথা উত্তরাখণ্ডের বিজেপি নেতার ছেলে পুলকিত ও তাঁর দুই সঙ্গীর বিরুদ্ধে। তাঁর ঘনিষ্ঠ সূত্র আরও জানিয়েছে যে, হরিদ্বার এবং হৃষিকেশেই কাজের খোঁজ করেছিলেন অঙ্কিতা ভাণ্ডারি। দেরাদুন থেকে হোটেল ম্যানেজমেন্ট পাশ করার পর বনান্তর রিসর্টে প্রথম চাকরি পেয়েছিলেন তিনি। চাকরির টাকায় ভালোভাবে সংসার চালানোর পরিকল্পনা ছিল তাঁর। কিন্তু, আশা পূরণের আগেই শেষ হয়ে যেতে হল তাঁকে।

Subscribe to get breaking news alerts

তাঁর বান্ধবীকে পাঠানো একটি মেসেজ উদ্ধার করেছে পুলিশ, যেটিতে লেখা রয়েছে, ‘ওরা আমাকে দেহ ব্যবসার পথে ঠেলে দিচ্ছে।’  রিসেপশনিস্ট হিসেবে কাজ করতে গিয়ে তাঁর ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা নিজের বন্ধুকে বর্ণনা করেছিলেন ১৯ বছরের সদ্য চাকরি পাওয়া তরুণী। তাঁর পাঠানো মেসেজের স্ক্রিনশটে দেখা গেছে যে, অঙ্কিতা লিখেছেন, ১০ হাজার টাকার জন্য তাঁকে বলা হয়েছে রিসর্টের অতিথিদের ‘বিশেষ পরিষেবা’ দিতে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে যে মেসেজটি অঙ্কিতারই পাঠানো। তবে, নিশ্চিত হওয়ার জন্য ফরেনসিক পরীক্ষা করা প্রয়োজন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হরিদ্বারের আরেক যুবক গত ২৭ অগস্ট এই রিসর্টে সুপারভাইজারের পদে চাকরি পেয়েছিলেন। সেই যুবক অঙ্কিতাকে কাজ শিখতে সাহায্য করেছিলেন। কিন্তু রিসর্টের অন্য কর্মীদের সঙ্গে বিশেষ বনিবনা না হওয়ায় গত ৮ সেপ্টেম্বর কাজ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন তিনি। সেই সুপারভাইজার অঙ্কিতার মৃত্যুর পর সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন যে, অঙ্কিতা তাঁর কাজ নিয়ে খুবই বিচলিত এবং উদ্বিগ্ন ছিলেন। কাজ ছেড়ে দেবেন বলে ১০ জনকে মেসেজও পাঠিয়েছিলেন।

তবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, ডুবে শ্বাসরোধ হয়েই মৃত্যু হয়েছে উত্তরাখণ্ডের তরুণী অঙ্কিতা ভাণ্ডারির। কিন্তু, তাঁর শরীরে ভোঁতা কোনও জিনিস দিয়ে বেশ কয়েকবার আঘাত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে অটপ্সি রিপোর্ট। শনিবার হৃশিকেশের অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস-এ অঙ্কিতার ময়না তদন্ত করা হয়। রবিবার তাঁর শেষকৃত্য হওয়ার কথা। 

অঙ্কিতার বাবা এবং ভাই প্রাথমিক ময়নাতদন্তের রিপোর্টের আপত্তি করেছেন। তাঁরা দাবি করেছেন যে, চূড়ান্ত পোস্টমর্টেম রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত তাঁরা অঙ্কিতার শেষকৃত্য সম্পাদন স্থগিত রাখবেন। "আমি অস্থায়ী পোস্টমর্টেম রিপোর্টে সন্তুষ্ট নই। আমরা চূড়ান্ত বিস্তারিত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত তার শেষকৃত্য সম্পাদন করব না। আমরাও চাই তার মামলার দ্রুত বিচার নিশ্চিত করার জন্য আদালতে নিয়ে যাওয়া হোক", জানিয়েছেন অঙ্কিতার বাবা বীরেন্দ্র সিং ভান্ডারি। অঙ্কিতার বাবা উত্তরাখণ্ড সরকারের উদ্দেশে ওই বিতর্কিত রিসর্টটি ভেঙে ফেলার প্রসঙ্গে সোজাসুজি প্রশ্ন তুলেছেন,  "প্রমাণ থাকা অবস্থায় কেন রিসর্টটি ভেঙে দেওয়া হল?"

মাত্র ১৯ বছরের অঙ্কিতাকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে রিসর্ট মালিক তথা উত্তরাখণ্ডের বিজেপি নেতার ছেলে পুলকিতের বিরুদ্ধে। দোষীদের শাস্তির দাবিতে পথে নেমেছেন ঋষিকেশের মানুষ। SIT গঠন করে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুস্কর সিং ধামি। 

আরও পড়ুন-
ভারতে যখন দেবীপক্ষ, ইরানে উড়ছে নারীদের চুলের ধ্বজা, ‘বরদাস্ত করব না’, হুঁশিয়ারি প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির
নাকতলা উদয়ন সংঘের দুর্গাপুজোয় পার্থ-কাণ্ডের ঝাঁঝ, উদ্যোক্তাদের আমন্ত্রণে সাড়াই দিলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
হাসপাতালের পথে হঠাৎ বিকল অ্যাম্বুলেন্স, গুরুতর অসুস্থ রোগীর উদ্ধারে নিজেই লেগে পড়লেন কলকাতা পুলিশের সুপ্রভাত