জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল করার পর থেকে ভারতের ওপর একের পর এক  আঘাত হানার চেষ্টা করেছে পাকিস্তান। সীমান্তে প্রতি নিয়ত জঙ্গি অনুপ্রবেশের সম্ভাবনার কথা প্রকাশ্যে এসেছে। পাশাপাশি একাধিকবার যুদ্ধবিরতিও লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। এর আগে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন আর এবার সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াতও একইভাবে হুঁশিয়ারি জারি করলেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। 

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিপিন রাওয়াত জানিয়েছেন, আর কোনও লুকোচুরি হবে না। যদি প্রয়োজন পড়ে তাহলে ভারতও সীমান্ত অতিক্রম করবে, তা সে সড়কপথে হোক কিংবা আকাশপথে বা দুইভাবেই। পাশাপাশি সন্ত্রাসবাদে মদত দেওয়ার জন্য় পাকিস্তানকে দোষারোপও করেছেন বিপিন রাওয়াত।  তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জম্মু ও কাশ্মীরের ওপর থেকে বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে দেওয়ার পর থেকেই জেহাদ ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। তিনি আরও বলেন যে ভারতের সঙ্গে ছায়াযুদ্ধে নেমেছে পাকিসস্তান,যা কখওই বরদাস্ত করা হবে না। 

প্রসঙ্গত, সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ-কে দুটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের পরে উপত্যকার পরিস্থিতি সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে সেনাপ্রধান বলেন, বিপুল সংখ্যক লোক বুঝতে পেরেছে যে সিদ্ধান্তটি তাদের পক্ষেই ছিল। তিনি আরও যোগ করেছেন যে ৩০ বছরের সহিংসতার পরে, জনগণকে শান্তির সুযোগ দেওয়া উচিত।