শনিবার, গুজরাতের কেভাদিয়ায় কম্বাইন্ড কমান্ডারদের কনফারেন্স-এ ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতীয় সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও বেশি করে দেশিয় করে তোলার উপর জোর দিলেন। ইতিমধ্য়েই বিদেশি সামরিক সরঞ্জামের বদলে দেশি অস্ত্রশস্ত্র সংগ্রহের দিকে মন দিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। তবে শুধুমাত্র সাজ-সরঞ্জাম ও অস্ত্রশস্ত্র সংগ্রহের ক্ষেত্রেই নয়, সশস্ত্র বাহিনীগুলির মতবাদ, অনুশীলন পদ্ধতি ও রীতিনীতিগুলিও আরও 'দেশি' করে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, গত এক বছর ধরে কোভিড মহামারি এবং একইসঙ্গে দেশের উত্তর অংশের সীমান্তে যে চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, তা মোকাবিলায় ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী যেভাবে নিজেদেরকে উত্সর্গ করেছে, তার জন্য নরেন্দ্র মোদী জওয়ানদেরভূয়সী প্রশংসা করেছেন। পরে প্রধানমন্ত্রী মোদী নিজেই টুইট করে জানান, তিনি বাহিনীকে আরও শক্তিশালী করে তোলার জন্য, সশস্ত্র বাহিনীকে বিভিন্ন সংস্কারের বিষয়ে বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে, স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে যে উদযাপন হবে, সেখানে বাহিনীর বীর অবসরপ্রাপ্ত জওয়ানদের কীভাবে সামিল করা যায়, তা নিয়েও আলোচনা করেছেন, বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

তবে, এদিন প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল, ভারতীয় সামরিক বাহিনীকে একটি 'ভবিষ্যতের শক্তি' হিসাবে গড়ে তোলা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, যেভাবে দ্রুত প্রযুক্তিগত পরিবর্তন ঘটছে, তাতে বাহিনীর ভবিষ্যতমুখী সংস্কার অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এছাড়া, জাতীয় সুরক্ষা ব্যবস্থায় জনশক্তি পরিকল্পনা ঢেলে সাজানোর প্রয়োজনীতার উপরও জোর দিয়েছেন। এবং তা দরকারি সামরিক ও বেসামরিক উভয় ক্ষেত্রেই।