নীতিশ কুমারের সঙ্গে আগে থেকেই দূরত্ব বেড়েছিল। কিন্তু বিহার নির্বাচনের আগে নীতিশ বিরোধী হিসেবে পরিচিত  জোটসঙ্গী লোকজনশক্তি পার্টির নেতা চিরাগ পাসোয়ানের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করে বিজেপি। তবে চিরাগ এখনও দাবি করেছেন তিনি বিজেপির সঙ্গেই রয়েছে। কেন্দ্রের মত বিহারের বিজেপির নেতৃত্ব সরকার গঠন করা হবে এমনটাই স্বপ্ন দেখেন তিনি। শুক্রবার প্রয়াত রামবিলাস পাসোয়ানের ছবির সামনে দাঁড়িয়ে চিরাগ পাসোয়ান বলেছেন, তাঁর হৃদরে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এমনকি তিনি নিজেকে হনুমানের সঙ্গে তুলনা করতেও দ্বিধা করেননি। তিনি বলেছেন, তাঁর বুক চিড়লে দেখা যাবে সেখানে রয়েছেন মোদী। তাই মোদীর ছবি টাঙানোর কোনও প্রয়োজন হয় না তাঁর। আর সেই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি প্রতিপক্ষ নীতিশ কুমারের প্রসঙ্গও উত্থাপন করেন। তিনি বলেন,৩৭০ থেকে শুরু করে নাগরিক আইন নিয়েও নীতিশ কুমার কেন্দ্রের বিরোধিতায় সরব হয়েছিল। অন্যদিকে কেন্দ্রের প্রতিটি পদক্ষেপেই সমর্থন জানিয়েছিল এলজেপি। আর সেই কারণেই লোক দেখানের জন্য বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারকে প্রধানমন্ত্রীর ছবি টাঙিয়ে রাখতে হয়। 

বিহারের নির্বাচন আসন সমঝোতা নিয়ে বিরোধ থাকায় নীতিশ কুমারের বিরোধীতা করতে শুরু করেন ৩৭ বছরের চিরাগ পাসোয়ান। জোটের বাইরে বেরিয়ে পাল্টা প্রার্থীও দেন তিনি। তবে তিনি নীতিশের জনতা দল ইউনাইটেড বা জেডিইউ-র বিরুদ্ধেই প্রার্থী দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন আগের মতই এখনও বিজেপির সঙ্গেই রয়েছেন তিনি। কিন্তু চিরাগ আর নীতিশের বিরোধ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যা নিয়ে কিছুটা হলে বিব্রত বিজেপি। এদিন চিরাগ পাসোয়ান আবারও আক্রমন করেন নীতিশ কুমারকে। তিনি বলেন গত সপ্তাহে তাঁর বাবা রামবিলাস পাসোয়ানের মৃত্যুর পর দেহ দিল্লি থেকে পাটনা নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেই সময় পাটনা বিমান বন্দরে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার। তাঁর প্রয়াত বাবার প্রতি তিনি শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন। কিন্তু চারাগ যখন নীতিশ কুমারকে প্রনাম করতে যান তখন তা অগ্রাহ্য করেন নীতিশ। আর নীতিশের এই ব্যবহারে রীতিমত অসন্তোষ তৈরি হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ভারতের সঙ্গে তুলনা করে পাকিস্তানকে সার্টিফিকেট রাহুল গান্ধীর, আবারও বিজেপিকে নিশানা ...  

করোনা চিকিৎসায় নাইট্রিক অক্সাইড হতে পারে তুরুপের তাস, তেমনই দাবি করেছে নতুন গবেষণা ...

অন্যদিকে চিরাগকে নিয়ে বিব্রত বিজেপির পরিস্থিতি সামল দেওয়ার চেষ্টা নামে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়কর চিরাগ পাসোয়ানের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন চিরাগ পাসোয়ান মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন। লোক জনশক্তি পার্টি ভোট কাটা ছাড়া আর অন্যকোনও দিনে মন দিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি। তিনি এদিন স্পষ্ট করেই বলে দেন বিজেপির কোনও বি আর সি টিম নেই। একই সঙ্গে বিহারে এনডিএ জোট তিন চতুর্থাংশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা পাবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি তিনি আরও বলেছেন চিরাগ পাসোয়ান নিজের রাস্তা নিজেই খুঁজে নিয়েছেন। বিজেপি নেতাদের নাম নিয়ে তিনি সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন।