গত লোকসভা ভোটে তৃণমূল কংগ্রেসের আসন কমে যাওয়ার পর দলের ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের উপর ভরসা রেখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যা। সম্প্রতি প্রশান্তের পরামর্শ মেনেই ফের একবার দিল্লি জয় করেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সেই প্রশান্ত কিশোরই এবার সমস্যায় পড়তে চলেছেন। সম্প্রতি তাঁর বিরুদ্ধে বিহারের পাটালিপুত্র থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

প্রশান্ত কিশোরের বিরুদ্ধে অভিযোগ, সম্প্রতি বিহারে তাঁর চালু করা কর্মসূচি 'বাত বিহার কি'-র কনসেপ্ট নাকি পুরোপুরি নকল করে টুকে দেওয়া। বিহারের মোতিহারির বাসিন্দা শাশ্বত গৌতম এমনটাই অভিযোগ তুসেছেন। তারপরেই জেডিইউ-র প্রাক্তন সহসভাপতির বিরুদ্ধে প্রতারণা ও বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে বিহার পুলিশ। 

আরও পড়ুন: অবশেষে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী, দিল্লিতে শান্তি ফেরাতে দিলেন ট্যুইট বার্তা

পিকে ছাড়াও শাশ্বত গৌতমের এফআইআরে ওসামা নামে আরও এক যুবকের নাম রয়েছে। ওসামা এর আগে পটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংঘের সভাপতির নির্বাচনে লড়েছিল। অন্যদিকে এফআইআর দায়ের করা গৌতম এর আগে কংগ্রেসের জন্য কাজ করেছেন। 

 গৌতম এফআইআরে জানান উনি 'বিহার কি বাত'  নামের নিজের একটি প্রোজেক্ট বানিয়েছিলেন। আর আগামী দিনে ওই প্রোজেক্ট লঞ্চ করার কথা চলছিল। ওসামা ওই প্রজেক্টে গৌতমের সাথে কাজ করছিল। কিন্তু কোন কারণে সে ওই প্রোজেক্ট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়। এর পরেই ওসামা পুরো প্রোজেক্টের তথ্য প্রশান্ত কিশোরের হাতে তুলে দেয় বলে দাবি শ্বাশত গৌতমের। তার পরেই পিকে সেই সকল তথ্য নিজের ওয়েবসাইটে তুলে দেন। গৌতম এই ব্যাপারে পুলিশকে যথেষ্ট প্রমাণও দিয়েছেন। গৌতম দাবি করেন যে, চলতি বছর জানুয়ারি মাসেই তিনি নিজের কনটেন্ট সহ ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রার করেছিলেন। অন্যদিকে প্রশান্ত কিশোর ফেব্রুয়ারিতে সেই একই কনটেন্ট নিজের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেন। ফলে এটা স্পষ্টত আইডিয়া চুরি করে নেওয়া। অভিযোগ খতিয়ে দেখে এরপরেই প্রশান্ত কিশোর ও ওসামার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: লজ্জার শিরোপা ভারতের, বিশ্বের দূষিত শহরগুলির দুই-তৃতীয়াংশ রয়েছে এদেশে

চলতি বছর জানুয়ারিতেই দলিবরোধী কাজের অভিযোগে জলতা দল ইউনাইটেজ থেকে প্রশান্ত কিশোরকে বহিষ্কার করেছেন নীতিশ কুমার। এদিকে চলতি বছরের শেষেই বিহারে বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনের আগে  জনমত সমীক্ষা করতে 'বাত বিহার কি' ক্যাম্পেনে সারা রাজ্য ঘোরার কথা ছিল প্রশান্ত কিশোরের। তার আগেই জালিয়াতির অভিযোগে ব্যাকফুটে ভোটকুশলী পিকে।