করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল গোটা দেশ। বিগত কয়েক দিনে সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও, উদ্বেগজনক পরিস্থিতি যে এখনও কাটেনি তা বারবার বলছেন বিশেষজ্ঞরা। এই পরিস্থিতিতে কোনও রকম ঢিলেমি দিলে তৃতীয় ঢেউ তরান্বিত হতে পারে বলেই মত চিকিৎসকদেরও। এই পরিস্থিতিতে সিবিএসই বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা হবে কিনা তা নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে চলছিল জল্পনা। অবশেষে ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদেরদের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার কথা ভেবে বাতিল করা হল চলতি বছরের সিবিএসই  বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা।

সিবিএসই বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেমির পরীক্ষার ভবিষ্যৎ নিয়ে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বৈঠকে অন্যান্য আধিকারিকরা পরীক্ষা নিয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রধানমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন। করোনা ভাইরাসজনিত অনিশ্চিত পরিস্থিতি এবং বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারদের কাছ থেকে প্রাপ্ত প্রতিক্রিয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে সিবিএসই বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা এই বছর অনুষ্ঠিত হবে না। ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই সিদ্ধান্তের পর স্বস্তি পেলেন লক্ষ লক্ষ পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা।

 

 

এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর ট্যুইটারে নিজের প্রতিক্রিয়াও দিয়েছেন প্রধামন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৈঠকের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদী লিখেছেন 'পক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য ও ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের দুশ্চিন্তার অবসান ঘটবে এই সিদ্ধান্তে। এই কঠিন পরিস্থিতিতে কোনও পড়ুয়া পরীক্ষা দিতে যেত বাধ্য হবে না।’ এছাড়া সকল স্টেকহোল্ডারদের শিক্ষার্থীদের প্রতি সংবেদনশীলতা দেখাতে হবে। ফলাফল সু-সংজ্ঞায়িত মানদণ্ড অনুযায়ী সুষ্ঠু ও সময়সীমাবদ্ধভাবে প্রস্তুত করার নির্দেশও কর্মকর্তাদের দিয়েছেন মোদী।