Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Biological Warfare: জৈবযুদ্ধের আশঙ্কা বিপিন রাওয়াতের, সতর্ক করলেন BIMSTEC দেশগুলিকে

জেনারেল বিপিন রাওয়ার বিমসটেক সদস্যদেশগুলির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত প্যানেক্স ২১ এর উদ্বোধ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন। সেই আন্তর্জাতিক মঞ্চ থেকেই তিনি জৈব যুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করেন। 

CDS bipin Rawat has warned BIMSTEC country against biological warfare bsm
Author
Kolkata, First Published Dec 7, 2021, 8:08 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত (CDS Bipin Rawat)  বাংলাদেশ, ভূটান, ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মায়ানমার ও থাইল্যান্ডকে জৈব যুদ্ধের বিরুদ্ধে সতর্ক করলেন। তিনি বলেন যেকোনও সময়ই বিমসেটক ( BIMSTEC) অন্তর্ভূক্ত দেশগুলিকে জৈব যুদ্ধের (Biological Warfare) মুখোমুখি দাঁড়াতে হবে পারে। সেই কারণে এখন থেকেই তার মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। 

জেনারেল বিপিন রাওয়ার বিমসটেক সদস্যদেশগুলির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত প্যানেক্স ২১ এর উদ্বোধ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন। সেই আন্তর্জাতিক মঞ্চ থেকেই তিনি জৈব যুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন জৈব যুদ্ধ একটি নতুন ধরেন যুদ্ধে পরিণত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন জৈব যুদ্ধের মত পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।  জৈব যুদ্ধ শুরু করে ভাইরাস বা কোনও রোগের দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে  যাতে আগামী পদক্ষেপ নেওয়া যায় তাও দ্রুততার সঙ্গে নিশ্চিত করতে হবে। সর্বোপরি এই জাতীয় যুদ্ধের মোকাবিলা করার জন্য নিজেদের শক্তি আরও বাড়াতে হবে। তিনি আরও বলেন জৈব যুদ্ধ যদি শুরু হয় তাহলে সংশ্লিষ্ট দেশগুলিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জীবাণু বা ভাইরাগুলির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য তৈরি থাকতে হবে। 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রথম থেকেই জৈব যুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন একাধিক বিশেষজ্ঞরা। করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গের সময় এই আশঙ্কা আরও বেড়েছিল। ভারতের যখন কোভিড মহামারী ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছিল তখনও জৈব যুদ্ধ ছিল আলোচনা একটি অন্যতম বিষয়। যাইহোক এদিন প্রাক্তন সেনা প্রধানও ইঙ্গিত দিয়ে গেলেন জৈব যুদ্ধের হুমকির মুখে রয়েছে ভারতসহ বেশ কয়েকটি দেশ। কোনও দেশের বিরুদ্ধে ভারত বা সংশ্লিষ্ট দেশগুলিকে লড়াই করতে হবে তা নিয়ে স্পষ্ট করেননি। 

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের বর্তমান সেনা প্রধান এমএম নারাভানে। কিনি বলেন জীবাণুর প্রাদুর্ভাব মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকার ওপরেই বেশি জোর দিয়েছেন। রাওয়াতের সঙ্গে সুর মিলিয়ে তিনিও জৈব যুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি ওমিক্রমণের সংক্রমণ বাড়ার কারণে সেনা প্রধান বলেছেন, এটি পরিষ্কার যে এখনও পর্যন্ত মহামারি শেষ হয়নি। এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট দেশগুলিকে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। 

কথা প্রসঙ্গে বিপিন রাওয়াত বলেছেন, এই ভাইরাসটি যদি অন্য আকারে রূপান্তিত হয় যায় তাহলে তার জন্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলিতে তৈরি থাকতে হবে। তিনি আরও বলেন, সংশ্লিষ্ট দেশগুলি যদি ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিহত করার চেষ্টা করে তাহলে যুদ্ধ জয় অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। এই অনুষ্ঠানে প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী অজয় ভাট বিমসটেক সদস্য দেশগুলিকে প্রাকৃতিক ও মানুষের দ্বারা তৈরি হওয়া দুর্যোগ মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। 

Nagaland Killing: হর্নবিল উৎসব বন্ধ, কেন্দ্রকে চিঠি লিখে আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি জানাতে পারে নাগাল্যান্ড

Farmer Protest: ১৫ মাস পরে শেষ হওয়ার পথে কৃষক আন্দোলন, কেন্দ্রের খসড়া নিয়ে আলোচনা
MP Holding Liquor Bottle: সংসদে মদের বোতল হাতে বিজেপি সাংসদ, কিন্তু কেন

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios