চাঁদের আরও কাছে পৌঁছে গেল চন্দ্রযান। ইসরো জানিয়েছে এদিন সকাল সাড়ে নটা নাগাদ, চন্দ্রযান ২ তার আগের কক্ষপথ থেকে এক লাফে পৌঁছে গিয়েছে ১৭৯ কিলোমিটারx১৪১২ কিলোমিটারের একটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে। অর্থাৎ এখন চাঁদের থেকে চন্দ্রযানের সর্বনিম্ন দূরত্ব মাত্র ১৭৯ কিলোমিটার। কলকাতা থেকে মন্দারমনির যা দূরত্ব তার চেয়ে সামান্য বেশি।

ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে সেই দিন। আগামী ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদের বুকে নামার কথা ল্যান্ডার বিক্রমের। তার আগে অবশ্য আছে আরও কয়েকটি কঠিন ধাপ। এই সপ্তাহের শেষের দিকেই চন্দ্রযান এদিনের মতো আরও দুটি লাফে পৌঁছে যাবে চাঁদের আরও কাছে, ১১৪ কিলোমিটার x ১২৮ কিলোমিটারের একটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে।

তারপর ২ সেপ্টেম্বর ল্যান্ডার বিক্রম, অর্থাৎ যে যানটি চাঁদের মাটিতে নামবে, আলাদা হয়ে যাবে চন্দ্রযান থেকে। তারপরের কয়েকদিন ল্যান্ডার বিক্রম চাঁদের আরও কাছে, নিজস্ব একটি কক্ষপথে ঘুরতে থাকবে। আর তারপর ৭ সেপ্টেম্বর রয়েছে সবচেয়ে কঠিন পর্ব। তবে তার সময় লাগবে মাত্র ১৫ মিনিট। ওই ১৫টা মিনিটই ঠিক করে দেবে ১৩০ কোটি দেশবাসীর চাঁদ ধরার স্বপ্ন সফল হবে না চুরমার হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন - পৃথিবী ছেড়ে বেরোল চন্দ্রযান ২, সাত দিনে পৌঁছবে চাঁদের কক্ষপথে

আরও পড়ুন - ইসরোর আরও এক সাফল্য, অনায়াসে চাঁদের কক্ষপথে পৌঁছে গেল চন্দ্রযান ২, দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন - চন্দ্রযান ২-এর তোলা ছবিতে 'অ্যাপোলো ক্রেটার', 'ওরিয়েন্তালে বেসিন'! এগুলি কী জানেন

আরও পড়ুন - অপেক্ষার আর কটা দিন! দেখেনিন কক্ষপথ থেকে চাঁদের কি ছবি পাঠাল ইসরো

যদি সব ঠিকঠাক যায়, তারপর চাঁদের বুকে কাজ শুরু করবে প্রজ্ঞান রোভার। ছয় চাকার এই রোভারটি ভারতের ১৪ দিন ধরে চন্দ্রপৃষ্ঠে ও তার নিচে বিভিন্ন ধরণের গবেষণামূলক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে।