ছেলের প্রেম বা এক মহিলার সঙ্গে সহবাস মেনে নিতে পারেননি। আর সেই কারণে রাগের বসে একের পর এক সাত সাতটা বাইকে আগুন লাগিয়েদিলেন এক অটোরিকসা চালক। গত অক্টোবর মাসে এই ঘটনা ঘটলেও তদন্তের কারণে সম্প্রতী এই ঘাটনা সামনে আসে তামিলনাড়ুর চেন্নাইয়ে। 

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে  ৫২ বছরের অটো রিকসা চালক করণের ছেলে অরুণের সঙ্গে মীনা (নাম পরিবর্তি)র দীর্ঘ দিন ধরেই প্রণয়েক সম্পর্ক ছিল। কিন্তু তাদের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি অরুণ। একাধিকবার ছেলেকে সম্পর্ক ছেদ করে দেওয়ার কথা বলেন। কিন্তু পারিবারিক অশান্তির কারণে অরুণ নিজের বাড়ি ছেড়ে মীনার  সঙ্গে একত্রে থাকতে শুরু করে। দুজনের মধ্যেই লিভ ইন রিলেশন বা সহবাসের সম্পর্ক ছিল বলেও দাবি করেছেন তিনি। অক্টোবর মাসে অরুণের মোটর সাইকেলে চড়ে মীনা ঘুরে বেড়াচ্ছিল। আর দেখতে পেয়ে যান অরুণের বাবা করণ। সেই দেখেই তাঁর মাথায় রক্ত উঠে যায়। রাগের বসে অরুণের মোটরসাইকেল যেখানে দেখেছিলেন সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা সাতটি বাইকে আগুন লাগিয়ে দেন। 

ভারতে টেলিকম যুদ্ধে 'ঘি ঢালল' কৃষক বিদ্রোহ, দুটি সংস্থার বিরুদ্ধে নালিশ জানাল জিও ...

৫ মাসে সবথেকে কম আক্রান্ত, বড়দিনের আগেই করোনা পরিসংখ্যানের গ্রাফে স্বস্তি পাবে ভারত ...

কিন্তু তদন্তে নেমে কিছুতেই রহস্যের সমধান করতে পারেনি পুলিশ। কে বা কারা মোটরবাইকগুলিতে আগুন লাগিয়ে আর উদ্দেশ্যই বা কী ছিল তা কিছুতেই স্পষ্ট হচ্ছিল না তদন্তকারীদের কাছে। অক্টোবর থেকে জট খুলতে খুলতে পুলিশ হাতে পায়ে একটি সিসিটিভি ফুটেজ। আর তাতেই দেখতে পায় করণ আগুন লাগিয়ে দিচ্ছে মোটরবাইকগুলিতে। তারপরই করণকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। তখন করণ জানায় সে ছেলের প্রেম মেনে নিতে না পেরেই রাগের বসে একের পর এক মোটর বাইকে আগুন লাগিয়েছিল। করণকে ইতিমধ্যেই জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় আদালত।