এটা কলিযুগ, তাই  লম্বা যুদ্ধের পরেও করোনা সংক্রমণ রোখা সম্ভব হচ্ছে না। বুধবার কিছুটা হলেও হতাশার ছবি দেখা গেল সুপ্রিম কোর্টে। গত সপ্তাহেই সুপ্রিম কোর্ট সিদ্ধান্ত নিয়েছে করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে শুধুমাত্র গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলিরই শুনানি হবে। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে জানান হয়েছে শুধুমাত্র চারটি বেঞ্চেই মামলার শুনানি হবে।  সেই নিয়েই এদিন এক আইনজীবী প্রশ্ন করেছিলেন। তারই উত্তর বিচারপতি অরুণ মিশ্র বলেন, এটা ঘোর কলিযুগ। তাই এত দিন ধরে যুদ্ধ করা হচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই বাগে আনা যাচ্ছেনা জীবানুকে। তিনি আরও বলেন ১০০ বছরে এরকম মহামারী একবারই আসে। এই জীবানুর সঙ্গে লড়াই করার জন্য মানুষ কী না করছে। সে তার তরফে সবরকম অস্ত্র ব্যবহার করেও কিছুই করতে পারছে না। তিনি আরও বলেন, এটা একা সরকারের লড়াই নয়। এই ভাইরাসের সঙ্গে প্রত্যেককে ব্যক্তিগত স্তরে লড়াই করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই চললেই সমস্যার সমাধান হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃ করোনা আতঙ্কে ভীত বৃদ্ধ দম্পতির পাশে দাঁড়িয়ে জনপ্রিয়, নেটিজেনদের প্রশংসায় সহমর্মিতার গল্প

আরও পড়ুনঃ করোনার সংক্রমণ রুখতে রীতিমত গানের তালে পা মেলাল কেরল পুলিশ, দেখুন সেই ভিডিও

করেনা সংক্রমণ আন্তর্জাতিক মহামারীর আকার নিয়েছে, একের পর এক দেশ সাটডাউনের পথে হেঁটেছে।  বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ২লক্ষর কাছে পৌঁছে গেছে। মৃতের সংখ্যা প্রায় ৬০০০। ভয়ঙ্কর এই ভাইরাস ইতিমধ্যেই পা রেখেছে ভারতে। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দেড়শোর কাছাকাছি। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। একাধিক রাজ্যে বন্ধ সরকারি অফিসও। যাতায়াতের ওপর নিয়ন্ত্রণ জারি করা হয়েছে। নোভেল করোনাভাইরাসের কোনও প্রতিষেধক আবিষ্কার না হওয়ায় উদ্বেগ আরও বাড়ছে। 

বর্তমানে ভারতে করোনার থেকে বাঁচতে অনেকেই আঁকড়ে ধরছে গোমূত্রকে। কোনও বৈজ্ঞানিক প্রমান না থাকা সত্ত্বেও অবাধে পান করছেন করোনা মোকাবিলায়। অনেকই গোবর আর গোমূত্র বিক্রি করতে পথে নেমেছে। অনেকে আবার দাবি করেছেন, গোমূত্রতেই সারবে করোনা। সেই সময় বিচারপতি অরুণ মিশ্রের বর্তমান সময়কে কলিযুগ আখ্যা দেওয়ায় কিছুটা হলেও আতঙ্ক বাড়ছে সাধারণের মনে। 

আরও পড়ুনঃ করোনাতেও মমতার ডেঙ্গি 'স্টান্স, 'কলকাতায় আক্রান্ত' খবরে হুঁশিয়ারি