শনিবার জম্মু-কিশত্বার জাতীয় সড়কের লাগোয়া একটি গ্রামে ভারতীয় সেনা এবং দুজন সন্দেহভাজন সন্ত্রাসবাদীর মধ্যে গুলির বিনিময় হয়, এরপরই ওই এলাকায় ব্যাপক তল্লাসি অভিযান শুরু করা হয়েছে বলে খবর। 

সেনা আধিকারিকের তরফে জানানো হয়েছে, রামবান জেলার বাটোটের কাছে হাইওয়ে লাগোয়া গ্রামে সন্দেহভাজন দুই আততায়ীর লুকিয়ে থাকার খবর পাওয়া গিয়েছে। সেনাবাহিনীর সূত্রে আরও জানানো হয়েছে যে, আজ অর্থাৎ শনিবার সকালে বাটোটে এলাকার জাতীয় সড়কের ওপর দুই সন্দেহভাজন ব্যক্তি একটি নাগরিক যান আটকানোর চেষ্টা করেন, কিন্তু চালকের সন্দেহ হওয়াতে সে গাড়ি না থামিয়ে সোজা সেনাবাহিনীর কাছে গিয়ে খবর দেয়। 

আরও পড়ুন- মন্দিরে নিষিদ্ধ পশু-পাখির বলি, ঐতিহাসিক রায় দিল ত্রিপুরা হাইকোর্ট

আরও পড়ুন- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মম হত্যাকাণ্ড, গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারালেন শিখ পুলিশ অফিসার

আরও পড়ুন- আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সমাদৃত স্বচ্ছ ভারত অভিযান, 'গ্লোবাল গোলকিপার' পুরস্কার পেলেন নমো

এই ঘটনার পর সেনাবাহিনীর ক্যুইক রিয়্যাকশন টিম তৎক্ষণাৎ পদক্ষেপ গ্রহণ করে এবং সন্দেহজনক ব্যক্তিদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করেন। এরপরই দুই পক্ষের মধ্যে গুলির লড়াই চলে বলেও জানা গিয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ধর্মুন্ড গ্রামে সন্ত্রাসবাদীরা গ্রেনেড ছোঁড়ে বলেও জানা গিয়েছে। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে এখনও গোটা এলাকাটি ঘিরে রাখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি বলেই জানা গিয়েছে। এখনও তল্লাশি অভিযান জারি রাখা হয়েছে। তবে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে, জাতীয় সড়কে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে বলে খবর।