প্রয়াত অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির পেনশন পাক রাজ্যসভার সবথেকে অভাবীরা। এমনই দাবি করল জেটলির পরিবার। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছেছে সেই আর্জি চিঠি।
জীবৎকালে উপকার করেছেন দেশের। এবার মৃত্যুর পরও দান করে যাবেন প্রয়াত বিজেপি নেতা অরুণ জেটলি। নেতার পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুর কাছে পাঠানো হয়েছে সেই চিঠি। যেখানে প্রয়াত নেতার স্ত্রী সঙ্গীতা জেটলি বলেন,বরাবরই নিজের উত্থানের পিছনে বন্ধু, সহকর্মী,মেন্টরদের অবদান স্বীকার করেছেন জেটলি। জীবিত থাকাকালীন পরিচিতদের সমস্যায় পাশে দাঁড়াতেন তিনি। আমি নিশ্চিত পরিবারের এই চিন্তার সঙ্গে সহমত হবেন তিনিও।

গত ২৪ অগস্ট ৬৬ বছর বয়সে মারা যান দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। পরিসংখ্য়ান বলছে,চার বার রাজ্যসভার সাংসদ হয়েছেন তিনি। সেকারণে রাজ্যসভার অভাবী কর্মীদের মধ্যেই এই বিজেপি নেতার পেনশন ভাগ করে দেওয়ার কথা বলেছে তাঁর পরিবার।