Asianet News BanglaAsianet News Bangla

গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট রীতিমত অবাক করার মত, তথ্য পেশ করে বলল কেন্দ্রীয় সরকার

একটি বিবৃতি দিয়ে মন্ত্রক দাবি করেছে যে অপুষ্ট জনসংখ্যার অনুপাতে রাষ্ট্রসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (FAO) ব্যবহৃত পদ্ধতিগুলি অবৈজ্ঞানিক।

global hunger report 2021 govt of india says it devoid of ground reality bsm
Author
Kolkata, First Published Oct 15, 2021, 10:27 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

'এটা আশ্চার্যজনক যে গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট ২০২১এ (Global Hunger Report 2021) অপুষ্ট জনসংখ্যার অনুপাতে FAOর অনুমানের ভিত্তিতে ভারতের ব়্যাঙ্ককে কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। যা বাস্তবতা ও সত্য থেকে অনেকটাই দূরে। এই রিপোর্ট গুরুতর পদ্ধতিগত সমস্যায়ও রয়েছে।' গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট নিয়ে এমনই মন্তব্য করেছে ভারতের শিশু ও মহিলা উন্নয়ন মন্ত্রক (Ministry of Women and Child Development)। শুক্রবার গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। বিশ্বের ১১৬টি দেশের মধ্যে এই সূচকে ভারতের স্থান ১০১। আগের তুলনায় আরও নিচে নেমে গেছে । গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। মন্ত্রক বলেছে, প্রকাশনা সংস্থাগুলি রিপোর্ট প্রকাশের আগে যথাযথ পরিশ্রম করেনি। 

একটি বিবৃতি দিয়ে মন্ত্রক দাবি করেছে যে অপুষ্ট জনসংখ্যার অনুপাতে রাষ্ট্রসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (FAO) ব্যবহৃত পদ্ধতিগুলি অবৈজ্ঞানিক। তারা গোটা বিষয়টি মাত্র চারটি প্রশ্নের ওপর ভিত্তি করে মূল্যায়ণ করেছে। গোটা ব্যবস্থাটাই টেলিফোনিক কথোপকথনের মাধ্যমে হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে অপুষ্টির বৈজ্ঞানিক পরিমাপের জন্য ওজন ও উচ্চতার পরিমাপের প্রয়োজন হয়। আরও বলা হয়েছে প্রতিবেদনে কোভিডএর সময়ে কেন্দ্রীয় সরকার গোটা দেশের খাদ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রচেষ্টাকে সম্পূর্ণরূপে উপেক্ষা করা হয়েছে। দেশের মানুষ কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া খাবার পেয়েছে কিনা সেই প্রশ্নই রাখা হয়নি  সমীক্ষায়। 

 

কেন্দ্রীয় সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়েছে 'স্টেট অফ ফুড সিকিউরিটি অ্যান্ড নিউট্রিশন ইন দ্যা ওয়ার্ল্ড ২০২১' এর প্রতিবেদনও যথেষ্ট অবাক করার মত। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা কোভিড ১৯ মহামারিতে আক্রান্ত হয়নি। বরং তারা গত বছরের তুলনায় অপুষ্ট জনসংখ্যার অনুপান আরও উন্নত করতে পেরেছে। 

জাতীয় শিশু ও মহিলা মন্ত্রক এফএও-র তথ্যের একটি তালিকাও জারি করেছে। যাতে বলা হয়েছে উপরের উল্লিখিত প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণরূপে উপেক্ষা করা হয়েছে। পাশাপাশি বলা হয়েছে তথ্যগুলি সর্বজনীন ডোমেইনে উপলব্ধ ছিল। প্রধানমন্ত্রীর গরীব কল্যাণ অন্ন যোজনা ও আত্মনির্ভর ভারত স্কিমে এমন কিছু উদ্যোগের মধ্যে ছিল যা মন্ত্রকের প্রতিক্রিয়াতে উল্লেখ করা হয়েছিল। এটি স্কিমের আওয়াত উপকারভোগীদের বিতরণ করা খাদ্য়শস্য তথ্য সরবরাহ করে। মন্ত্রক কৃষি, শ্রমিক ও অন্যান্য নিম্ন আয়ের মানুষদের যে আর্থিক সাহায্য দেওয়াহয়েছিল তারও তালিকা ছিল। কিন্তু রিপোর্টে সেগুলিকে কোনও গুরুত্বই দেওয়া হয়নি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios