Asianet News BanglaAsianet News Bangla

গণেশ চতুর্থীর আগে মুম্বইয়ের কাছে উদ্ধার কালাশনিকভ ভর্তি নৌকা, মহারাষ্ট্রে হাই অ্যালার্ট

বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের রায়গড় উপকূলের হরিহরেশ্বর ঘাটে দুটি নৌকোর হদিশ মেলে। নৌকো দুটি থেকে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র। ৩টি  AK-47 রাইফেল সহ উদ্ধার হইয়েছে প্রচুর কার্তুজ। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে মুম্বই জুড়ে।

 High alert issued in Maharashtra, arms laden boats rescued from Raigarh coast
Author
Kolkata, First Published Aug 18, 2022, 5:08 PM IST

গণেশ চতুর্থীর আগে অস্ত্র উদ্ধার বানিজ্য নগরীতে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মুম্বই জুড়ে। মহারাষ্ট্রের রায়গড় উপকূল থেকে বাজেয়াপ্ত করা হল অস্ত্র বোঝাই দুটি নৌকো। ঘটনার জেরে হাই এলার্ট জারি করা হয়েছে মহারাষ্ট্রে। ইতিমধ্যে নৌকার আরোহীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে মহারাষ্ট্র পুলিশ। 
বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের রায়গড় উপকূলের হরিহরেশ্বর ঘাটে দুটি নৌকোর হদিশ মেলে। নৌকো দুটি থেকে উদ্ধার প্রচুর পরিমাণ অস্ত্র। ৩টি  AK-47 রাইফেল সহ উদ্ধার হইয়েছে প্রচুর কার্তুজ। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে মুম্বই জুড়ে।
উল্লেখ্য, এর আগে ২৬/১১এর হামলার সময়ও একইভাবে মহারাষ্ট্রে অনুপ্রবেশ করেছিল হামলাকারীরা। নৌকোয় করে সমুদ্র পথে এই অস্ত্র মহারাষ্ট্রে আসা কি সেইরকমই কোনও ঘটনার পূণরাবৃত্তির ইঙ্গিত দিচ্ছে? কোথা থেকে এল এত অস্ত্র সহ এই নৌকো? কারাই বা আরোহী ছিলেন এই নৌকোয়? এইরকম নানা প্রশ্ন ঘিরে রীতিমত উদ্বেগে প্রশাসন। 
প্রসঙ্গত আর কিছু দিনের মধ্যেই মহারাষ্ট্রে মহা ধুমধাম করে পালিত হবে গণেশ চতুর্থী। এত বড় উৎসবের এই এই ঘটনা কি কোনও বড় নাশকতার ইঙ্গিত? নাকি কোনও সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের ষড়যন্ত্র, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। 

আরও পড়ুন - আল কায়দার সঙ্গে জড়িত! শাসন থেকে গ্রেফতার দুই


মুম্বই থেকে মাত্র ২০০ কিলোমিটারের দূরত্বে এই অস্ত্র উদ্ধারে চাপ বাড়ছে মহারাষ্ট্র সরকারের উপরে। ঘটনার তদন্তে সহায়তা করবে মহারাষ্ট্রের সন্ত্রাস বিরোধী স্কোয়াডও। 
এই প্রসঙ্গে প্রাক্তন এনএসজি কমান্ডার দীপাঞ্জন চক্রবর্তী বলেছেন, "অতীতে মুম্বই-এ বোমা হামলার সময়ও দাউদ ইব্রাহিমের মাধ্যমে রায়গড় বেল্ট দিয়েই আরডিএক্স মহারাষ্ট্রে এসেছিল। তবে ২৬/১১-এর ঘটনার পর সমুদ্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনেক কড়া হয়েছে। প্রত্যেক মুহুর্তে চলে নজরদাড়ি। এখন চিন্তার বিষয় হল, এত কড়া নজরদারি এড়িয়ে কী ভাবে অস্ত্র বোঝাই  নৌকো মহারাষ্ট্রে প্রবেশ করল।" তিনি আরও বলেন,"গণেশ চতুর্থী মহারাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় উৎসব। জনগণের উৎসব। গোটা মহারাষ্ট্র এই সময় পথে নেমে পড়ে। এইরকম সময় এই অস্ত্র কারো হাতে এলে তা সত্যিই সরকারের চিন্তার বিষয়।" গণেশ চতুর্থীতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনার প্রভাব সাংঘাতিক হতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি, এমনকী তা সাম্প্রদায়িক দিকেও মোড় নিতে পারে। 

আরও পড়ুন গায়ের ওপর ঘুরছে বিছে! কোন্ডমাই মন্দিরের বিশেষ পুজো দেখে শিহরিত হবেন আপনিও

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios