শুক্রবার ছিল বায়ুসেনা দিবস। বায়ুসেনার পক্ষ থেকে দিনটি নানাভাবে উদযাপন করা হলেও সবচেয়ে বড় চমক দিলেন বাহিনীর দুই কর্মী। এই দিনেই সর্বোচ্চ উচ্চতায় স্কাইডাইভ অবতরণের নতুন রেকর্ড গড়ে ভারতীয় বাযুসেনার জন্য নতুন গর্বের মুহূর্ত রচনা করলেন। লেহ উপত্যকায় ১৭৯৮২ ফুট উচ্চতার খারদুংলা পাসে  অবতরণ করে তাঁরা এই বিষয়ে অতীত রেকর্ডটি ভেঙে দিয়েছেন উইং কমান্ডার গজানাড় যাদব এবং ওয়ারেন্ট অফিসার এ কে তিওয়ারি।

একটি সি-১৩০জে বিমান থেকে তাঁরা স্কাইডাইভ করে লেহের খারদুংলা পাসে নামেন। আইএএফের মুখপাত্র উইং কমান্ডার ইন্দ্রনীল নন্দী বলেছেন, এইরকম পার্বত্য অঞ্চলে বায়ু ঘনত্ব খুব কম থাকার কারণে অক্সিজেনের মাত্রাও খুব কম থাকে। সেই কারণে এই জাতীয় উচ্চতায় অবতরণ অত্যন্ত চ্যালেঞ্জের।

৮৮ তম এয়ার ফোর্স দিবস উদযাপনের সময় রাফাল ফাইটার জেট বিমানকেই 'বিজয়' ফর্মেশনের নেতৃত্বে রাখা হয়েছিল। তার পাশে ছিল দুটি জাগুয়ার এবং দুটি মিরাজ ২০০০ ফাইটার জেট। এছাড়া, সুখোই-৩০ এমকেআই যুদ্ধবিমানের সঙ্গে অ্যাসিঙ্ক্রোনাস ফর্মেশনেও অংশ নিয়েছিল রাফাল জেট। মোট ৫৬ টি যোদ্ধা এয়ারক্র্যাফ্ট এই প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছিল। তারমধ্যে ছিল ১৯টি ফাইটার জেট, ১৯টি হেলিকপ্টার, সাতটি পরিবহন বিমান, সূর্যকিরণ এয়ারোব্যাটিক দলের সাতটি বিমান এবং দুটি ভিনটেজ বিমান। এছাড়াও, ১৯ টি বিমান স্ট্যান্ডবাই হিসাবে আকাশে উড়ছিল। প্রথমবারের জন্য, আইএএফ-এর এমআই-৩৫ এবং এএইচ-৬৪ অ্যাপাচি অ্যাটাক হেলিকপ্টারের সমন্বয়ে একটি 'একলব্য' ফর্মেশন গঠন করা হয়েছিল। এছাড়া নিচে ১১ টি বিমান এবং রোহিনী ও আকাশ নামে দুটি বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও প্রদর্শনীতে ছিল।