দৈনিক সংক্রমণে ফের নতুন রেকর্ড গড়ে ফেলল ভারত। বুধবার দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬১ হাজারের কম। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই দৈনিক সংক্রমণ নতুন করে চিন্তার ভাজ ফেলল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে সংক্রমণের শিকার হয়েছে ৬৬,৯৯৯ জন। যা এদেশে এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। ফলে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে  ২৩ লক্ষ ৯৬ হাজার ৬৩৮। বৃহস্পতিবারই আক্রান্তের সংখ্যা দেশে ২৪ লক্ষ পার করে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

 

 

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে কোভিড ১৯ রোগে মৃত্যু হয়েছে ৯৪২ জনের। ফলে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৭,০৩৩। আর এর সঙ্গেই বিশ্বে করোনায় মৃতের তালিকায় ব্রিটেনকে পেছনে ফেলে চার নম্বরে উঠে এল ভারত। 

আরও পড়ুন: প্রণবের মৃত্যুর ভুয়ো খবর ছড়ালেন বিশিষ্ট সাংবাদিক, গুজবে তিতিবিরক্ত মুখোপাধ্যায় পরিবার

এসবের মধ্যে অবশ্য আশা দেখাচ্ছে দেশে সুস্থতার হার। এদেশে এখনও পর্যন্ত করোনাকে জয় করেছেন ১৬ লক্ষ ৯৫ হাজার ৯৮২ জন। ফলে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ভারতে এখন ৬ লক্ষ ৫৩ হাজার ৬২২। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫৬ হাজার ৩৮৩ জন। এখনও পর্যন্ত দেশে সুস্থতার হার ৭০.৭৭ শতাংশ।  সেখানে দেশে মৃতের হার ২.০০ শতাংশ। 

আরও পড়ুন: রাম রাজত্বের পর এবার সোনার টুকরো দেশ, নদীতে ভেসে আসছে বহু মূল্যবান স্বর্ণ কুচি

এদিকে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ জানিয়েছে ১২ আগস্ট দেশে করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮ লক্ষ ৩০  হাজার ৩৯১। যা একদিনে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ ফলে দেশে এখনও পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২ কোটি ৬৮ লক্ষ ৪৫ হাজার ৬৮৮। 

 

 

বর্তমানে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যায় এক নম্বরে রয়েছে মহারাষ্ট্র। রাজ্যটিতে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪৭ হাজার ৮২০। অরপরেই রয়েছএ অন্ধ্রপ্রদেশ। দক্ষিণের এই রাজ্যে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজার ৪২৫। 

 বিশ্বে করোনা সংক্রমণে এখন প্রথম স্থানে রয়েছে আমেরিকা। দেশটিতে  মোট আক্রান্ত ৫১ লক্ষ ৫৭ হাজারেরও বেশি।  দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে আক্রান্ত ৩১ লক্ষ ৬৪ হাজার। এদিকে ভারতে আক্রান্ত বাড়লেও ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার ধীরে ধীরে কমছে। প্রতি দিন যে সংখ্যক মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তার মধ্যে যত শতাংশের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেটাকেই বলা হচ্ছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। মঙ্গলবার থেকেই এই হার রয়েছে নয় শতাংশের কম। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সংক্রমণ হার ৮.০৭ শতাংশ।