এবার ইসলামিক স্টেট-এর জঙ্গি চক্র ধরা পড়ল খোদ জম্মু কাশ্মীরে। উপত্যকার বাদগাম অঞ্চল থেকে আইএস জঙ্গিদের সাহায্য়কারীদের ধরেছে পুলিশ। পাঁচজনকে গ্রেফতার করে ইসলামিক  স্টেট-এর জঙ্গিচক্র খুঁজে পেয়েছে পুলিশ।

দিল্লির জয়ে উজ্জীবিত বাংলা, সদস্য বাড়াতে কলকাতায় মিছিল আপ-এর

সূত্রের খবর, ৩৭০ ধারা বিলোপের পর কাশ্মীরে বড়সড় জঙ্গি হানার পরিকল্পনা করছে এই আইএস জঙ্গিরা। সূত্রের খবর, জঙ্গি সন্দেহে ধৃতদের গ্রেফতার করে জানা গিয়েছে, আইএস জঙ্গিদের আশ্রয় ও খাবার সরবরাহ করত এই পাঁচজন। ইতিমধ্য়েই ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। 

প্লেসমেন্টে নতুন রেকর্ড আইআইএম কলকাতার, গড় বেতন ২৮ লক্ষ

উপত্যকার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি বলছে, আগের মতো সন্ত্রাসী হামলায় রক্তাক্ত হচ্ছে না ভূ-স্বর্গ। গোয়েন্দাদের রিপোর্ট মেনে কাশ্মীর থেকে আধা সামরিক বাহিনীর এক বড় অংশ সরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সেই অনুযায়ী কাশ্মীরের বেশকিছু কোম্পানিকে উত্তর পূর্বে পাঠানো হয়েছে। ইদানীংকালে সংবেদনশীল কিছু এলাকা বাদে সব জায়গাতেই ফোনের লাইন চালু করে দেওয়া হয়েছে। ইন্টারনেট পরিষেবা ফিরে এসেছে কাশ্মীরে। 

কেজরিওয়ালের পথ ধরেই কি বিধানসভার বৈতরণী পার হতে চাইছেন মমতা

সূত্রের খবর, উপত্যকায় ইন্টারনেট পরিষেবা বাদেই দিব্যি চলছে কাজ। পুলিশের ধারণা, সরকারের ২জি পরিষেবার পরিবর্তে ভিপিএন অ্যাপ নামিয়েই চলছে সব কাজ। কেউ কেউ  ফোনে পাঁচ থেকে সাতটি ভিপিএন নামিয়ে রেখেছে। পুলিশের কাছে এই ভিপিএন-ই এখন বড় চিন্তার কারণ। তাদের আশঙ্কা, ভিপিএন-এর মাধ্য়মে হামলার  ছক কষতে পারে জঙ্গিরা। তাই জম্মু-কাশ্মীরে কিছু দিনেই মধ্য়েই ভিপিএন-এ নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে সরকার।