জামিয়া মিলিয়ায় গুলি কাণ্ডে অভিযুক্তের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিল ফেসবুক। বৃহস্পতিবার জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে সিএএ বিরোধী প্রতিবাদের সময় সর্বসমক্ষে গুলি চালায়েছিল ওই ব্যক্তি। তারপরেই অভিযুক্তের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ফেসবুক।

 

 

জানাযাচ্ছে গুলি চানালোর আগে অভিযুক্ত ফেসবুকে লাইভ স্ট্রিম করে। চলতি মাসেই সিএএ-এর বিরুদ্ধে চলা প্রতিবাদের বিরুদ্ধে একাধিক স্ট্যাটাস আপডেট পোস্ট করেছিল ওই ব্যক্তি। তবে ফেসবুকে আক্রমণের কিছুভণ আগেই লাইভ স্ট্রিম করলেও ভিডিওতে কোনো হিংসা দেখানো হয়নি। ফেসবুকের দাবি, সংবাদ মাধ্যেম প্রচারিত অন্য এক ভিডিওতে হিংসা দেখা গিয়েছিল।

আরও পড়ুন: কাশ্মীরে ফের পুলিশের উপর হামলা, পাল্টা গুলিতে মৃত্যু ৩ জঙ্গির

ফেসবুকে নিজেকে রামভক্ত গোপাল নামে পরিচয় দিয়েছিল ওই যুবক। ফেসবুকের তরফে জানানো হয়েছে, যারা এই ধরনের হিংসায় জড়িতে ফেসবুকে তাদের কোনও স্থান নেই। আমরা বন্দুকধারীর অ্যাকাউন্ট ইতিমধ্যে বন্ধ করে দিয়েছি। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে জামিয়া চত্বরে আচমকাই বন্দুক উঁচিয়ে তেড়ে যায় রামভক্ত গোপাল। আচনমকা গুলি ছুঁড়তে থাকে সে। আর সেই গুলি ছোড়ার খানিকক্ষণ আগে ফেসবুক লাইভেও সে ছিল সক্রিয়। পুলিশসূত্রে জানা যাচ্ছে, উত্তরপ্রদেশের গৌতমবুদ্ধ নগরের বাসিন্দা এই যুবক। 

আরও পড়ুন: ১০ ঘণ্টার অভিযান শেষে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার পণবন্দি শিশুদের, গুলিতে মৃত্যু অপহরণকারীর

বৃহস্পতিবারের গুলির ঘটনায়  দামিয়ার ছআত্র শাদাব ফারুক আহত হন। তবে আপাতত তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। দিল্লি এইমসে চিকিৎসা চলছে। এদিকে জামিয়া গুলি কাণ্ডে যখন উত্তাল দেশ তখন অভিযুক্তকে রেয়াত করা হবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।