আবাও রক্তাক্ত হল ভূস্বর্গ। এবার জঙ্গিদের গুলিতে মৃত্যু হল কুলগামের বিজেপি নেতা সাজাদ আহমেদের। তিনি কুলগামের কাজিকোন্ড ব্লকের ভেসু গ্রামের সরপঞ্চ বা গ্রাম প্রধান ছিলেন। কুলগাম জেলার বিজেপির সহসভাপতিও ছিলেন তিনি। বাড়ি থেকে মাত্র ২০ মিটার দূরে তাঁকে খুব কাছ থেকে নিশানা বানায় জঙ্গিরা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায়  অনন্তনাগের হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। সম্প্রতি কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এটি ছিল ভারতীয় জনতা পার্টির নেতাদের লক্ষ্য করে চতুর্থ হামলা। 


বেশ কয়েক দিন ধরেই অন্যান্য গ্রামপ্রধানদের সঙ্গে সাজাদ আহমেদ ভেসুর একটি অভিবাসী শিবিরে ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালেই তিনি শিবির ছেড়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন। কিন্তু বাড়ি ঢোকার আগেই জঙ্গিরা তাঁকে নিশানা বানায়। গত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এই নিয়ে দুজন গ্রাম প্রধানের ওপর হামলা চালাল সন্ত্রাসবাদীরা। তবে এই হামলার দায় এখনও কোনও জঙ্গি সংগঠন স্বীকার করেনি। 

গতমাসেই বান্দিপোরায় বিজেপি কর্মী ওয়াসিম বারি ও তাঁরা পরিবারের সদস্যদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে জঙ্গিরা। এই ঘটনায় ওয়াসিম বারি, তাঁর বাবা ও ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।

ফেসবুক পোস্ট নিয়ে মতবিরোধের ভয়ঙ্কর পরিণতি, প্রাক্তন সেনা কর্মীর হাতে খুন ওষুধ বিক

২০০৫ সালের ভয়ঙ্কর প্রাকৃতিক তাণ্ডবের স্মৃতি ফিরে এল মুম্বইতে, পরিস্থিতি নিয়ে কথা প্রধানমন্ত্রী-মুখ্য...

গতকালই ছিল জম্মু ও কাশ্মীরে সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদের বর্ষপূর্তি।  আর সেই উপলক্ষ্যে নাশকতা এড়াতো ভূস্বর্গের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে কার্ফু জারি করা হয়েছিল। নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছিল গোটা এলাকা। বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের নিরাপত্তাও বাড়ান হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও দিনই বিজেপি নেতার রক্তে রক্তাক্ত হল কাশ্মীরের মাটি। সাজাদ আহমেদকে খুনের ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিরা।  

চিনা আগ্রাসন রুখতে তৈরি হিমাচল প্রদেশ, লাল ফৌজদের রুখতে গ্রামবাসীরা সামিল মিশনে...