শক্রু পক্ষ বা জঙ্গিদের কারণে নয়। এবার বিদ্যুতের বিল দেখেই মাথায় হাত পড়েছে জম্মু ও কাশ্মীরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআরপিএফ-এর এডিজি জুলফিকার হাসানের। কারণ আর কিছুই নেয় উপত্যকায় সিআরপিএফএর ১৮১ ব্যাটালিয়নের যে জঙ্গিদের সঙ্গে প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়াই চালাচ্ছে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁদের এক মাসের বিদ্যুতের বিল ধরানো হয়েছে প্রায় দেড় কোটি টাকা। যা নিয়ে রীতিমত উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে ভূস্বর্গের নিরাপত্তা রক্ষীদের মধ্যে। 

সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সে ১৮১ নম্বর ব্যাটালিয়ান চর শেরিফে জুলাই মাসে একটি শিবিরের আয়োজন করেছিল। আর শিবিরের পরেই নিরাপত্তার বাহিনীর হাতে ১ কোটি ৫১ লক্ষ ৫৯ হাজার ৮৯৭ টাকা বিল ধরানো হয়েছে। আর যা দেখে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা জওয়ানরা রীতিমত হকচকিয়ে যায়। জম্মু ও কাশ্মীর বিদ্যুৎ দফতের হাত থেকে বিলটি  নেওয়ার পরই শুরু হয় প্রশাসনিক তৎপরতা। তারপরই দেড় কোটি টাকা বিলের কথা পৌঁছায় সিআরপিএফএর এডিজির কাছে। 

কংগ্রেস সভানেত্রীর পদ ছাড়তে চলেছেন সনিয়া গান্ধী, সোমবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক নিয়ে জল্পনা ...

'হাউডি মোদী' থেকে 'নমস্তে ট্রাম্প', মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মিশে গেল টেক্সাস থেকে গুজরাত
যদিও এডিজি জুলফিকার হাসান মনে করেছেন বিদ্যুৎ দফতরের কাজে কোনও রকম ভুল হয়েছে। তবে স্থানীয় বিদ্যুৎ দফতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু সেখানেও আবার বিভ্রাট। কারণ সপ্তাহশেষের ছুটি থাকায় আধিকারিকদের সঙ্গে এখনও পর্যন্ত যোগাযোগ করা যায়নি। 

ময়ূরদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী, নরেন্দ্র মোদীর নতুন ভিডিও মন কেড়েছে নেটিজেনদের ...

সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সকে পাঠানো বিলে বলা হয়েছে বদগাম জেলার মোতয়েন থাকা ১৮১ নম্বর ব্যাটালিয়ান খবর করেছে ৫০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ। কিন্তু এই বিদ্যুতের মাশুল হিসেবে দেড় হাজার টাকা। কিন্তু বিল পাঠান হয়েছে দেড় কোটি টাকার। পাশাপাশি বলা হয়েছে বিলটি তৈরি হয়েছে ১০ অগাস্ট। আর ২৭ অগাস্টের মধ্যে বিলের অর্থ পরিষোধ যোগ্য।