ভারতের শীর্ষ সামরিক আধিকারিকরা অংশ নেবেন। থাকবেন প্রধানমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মতো ভিভিআইপিরা। আর সেই সম্মেলনেই প্রথমবারের মতো অংশ নিতে চলেছেন, জুনিয়র কমিশনড অফিসার (JCO) এবং জওয়ানরাও। বৃহস্পতিবার থেকে গুজরাটের কেভাদিয়ায় শুরু হবে তিন দিন ব্যাপী এই সম্মেলন। প্রথমদিনই সম্মেলনে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

কম্বাইন্ড কমান্ডারস কনফারেন্স-এ প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও অংশ নিচ্ছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, প্রতিরক্ষা প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তিন বাহিনীর প্রধানরা এবং সশস্ত্র বাহিনীগুলির কমান্ডার-ইন-চিফ র‌্যাঙ্কের আধিকারিকরা। তবে এইবারের আসল চমক হল, এই সব উচ্চ পদস্থ সেনাকর্তাদের সঙ্গেই এই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সাম্নাত এলাকায় কর্মরত কয়েকজন জেসিও (JCO) এবং জওয়ানদের।  

কীভাবে তারা ভারত ও চিনের মধ্যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (LAC) এলাকায় চিনকে রুখে দিয়েছে এবং জম্মু ও কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণরেখা (LOC) বরাবর জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে, সেই রিষয়ে তাদের অভিজ্ঞতা জানার জন্যই এই নিচু তলার অফিসার ও জওয়ানদের এই সম্মেলনে ডাকা হয়েছে। সম্মেলনের এক অংশে জেসিও ও জওয়ানরা সামরিক কোনও বিষয়ে একটি উপস্থাপনা দেবে বলে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।