মোদী সরকারের আনা নতুন তিনটি কৃষি বিলের সমর্থনে জোরদার প্রচারে নেমেছে বিজেপি। আর বিজেপির সেই প্রচারে অন্যতম হাতিয়ার করা হয়েছে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীকে। সনিয়া গান্ধীর একটি পুরনো ভিডিও বর্তমানে কৃষি আইন নিয়ে বিজেপির প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার হয়েছে। আর সেই ভিডিওটি বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা। একই সঙ্গে তিনি সেই এদিনও নিশানা করেন কংগ্রেসকে। একই বলেন বলেন নতুন তিনটি কৃষি আইন নিয়ে কংগ্রেস বিভ্রান্ত করছে আন্দোলনকারী কৃষকদের। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় সনিয়া গান্ধীর পুরনো ভিডিও পোস্ট করার পাশাপাশি জেপি নাড্ডা লিখেছেন, কৃষকদের বঞ্চিত করা আর বিভ্রান্ত করার কংগ্রেসের এক ও একমাত্র উদ্দেশ্য। তিনি আরও বলেন একটা সময় ছিল যখন সনিয়া গান্ধী নিজে কৃষকদের জন্য মধ্যসত্ত্বভোগী বা দাদাল মুক্ত বাজারের জন্য সওয়াল করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন মধ্যসত্ত্বভোগীদের বাদ দিয়ে কৃষকরা যতদিন পর্যন্ত নিজেদের উৎপাদিত ফসল সরাসরি বিক্রি করতে পারবে ততদিন পর্যন্ত কৃষকদের উন্নতি সম্ভব নয়। কৃষকদের কেন তাদের তৈরি ফসলের ন্যায্য দাম পাবে না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন তিনি। 

সনিয়া গান্ধী পুরনো ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জেপি নাড্ডা দাবি করেছেন যে কংগ্রেস শুধুমাত্র রাজনৈতিক লাভের জন্যই কৃষক আন্দোলনে মদত দিচ্ছে। নতুন তিনটি কৃষি  আইনের বিরোধীতা করছে। চলতি মাসের শুরুতেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ দাবি করেছিলেন যে কৃষি ক্ষেত্রে বেসরকারিকরণের দিয়ে এগিয়েছিল কংগ্রেস। ২০১৯এর নির্বাচনী ইস্তেহারে এটি একটি অ্যাজেন্ডা ছিল। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও একটি অনুষ্ঠানে বলেছিলেন কৃষি আইনের সাফল্যের কোনও রকম অংশীদার হতে চান না তিনি ও তাঁর দল। সাফল্য ও কৃতিত্ব পুরোপুরি বিরোধীরা নিক। কৃষকদের স্বার্থেই দেশে কৃষি আইন লাগু করা অত্যন্ত জরুরি বলেও তিনি দাবি করেছিলেন। জেপি নাড্ডাসহ বিরোধী এদিন প্রথম  সারির নেতা এদিন কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল করে আসরে নেমেছে। এদিনই এক মাস পূর্ণ করল দিল্লির উপকণ্ঠে চলা কৃষক আন্দোলন। তাই এবার প্রশ্নটা উঠেই যাচ্ছে কৃষি আন্দোলনের ভবিষ্য়ৎ নিয়ে। কারই  বিজেপির প্রচারের কাছে কতটা দাঁড়াতে পাবরে কৃষকরা সেটাই এখন দেখার।