৩৫৪ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক জালিয়াতির অভিযোগে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা কমল নাথের ভাগ্নে রাতুল পুরিকে গ্রেফতার করল এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেক্ট। ইডির পাশাপাশি সিবিআই-ও রাতুল এবং দীপক পুরি, নীতা পুরি-সহ আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে। সোমবারই এই মামলার তদন্ত শুরু করেছিল ইডি।

এফআইআর-এ মোসার বায়ার ইন্ডিয়ার প্রাক্তন এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রাতুল পুরি, ম্যানেজিং ডিরেক্টর দীপক পুরি, ফুল টাইম ডিরেক্টর নীতা পুরি, ডিরেক্টর সঞ্জয় জৈন, ডিরেক্টর বিনীত শর্মা, ও আরও কয়েকজন আধিকারিকের বিরুদ্ধে প্রতারণা, জালিয়াতি এবং অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে। সিবিআই জানিয়েছে, গত ১৬ অগাস্ট সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া এঁদের বিরুদ্ধে ৩৫৪.৫১ কোটি টাকার প্রতারণার অভিযোগ করেছে।

আরো পড়ুন - বাথরুমে গিয়েই উধাও, ইডি অফিস থেকে পালালেন মুখ্যমন্ত্রীর ভাগ্নে

আরো পড়ুন - আধুনিক যুগের অশ্বমেধ যজ্ঞে মোদী-শাহ! এবার নিশানায় মধ্যপ্রদেশ, পথ দেখাল কর্নাটক

সিডি, ডিভিডির মতো অপটিকাল স্টোরেজ ডিভাইস ও এসএসডি তৈরি করত মোসার বায়ার। ২০০৯ সাল থেকে তারা বিভিন্ন ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নেওযা শুরু করেছিল। তারপর থেকে বেশ কয়েকবার ঋণ শোধের সময়সীমা পরিবর্তন করিয়েছিল বলে অভিযোগ করেছে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক। শেষ পর্যন্ত ঋণ শোধ করতে না পারায় একটি ফরেন্সিক অডিট করা হয়। আর তারপরই ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক ওই সংস্থার অ্যাকাউন্টকে 'ফ্রড' বা জালিয়াত বলে ঘোষণা করে।