আবারও নির্মম নারী নির্যাতনের সাক্ষী থাকল বেঙ্গালুরু। এবার নিজের বাবার হাতে ধর্ষিতা হতে হল মেয়েকে। ধর্ষণের অভিযোগে নির্যাতিতার বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে অভিযুক্ত যেভাবে নির্জের মেয়েকে ধর্ষণ করেছে না নিয়ে যথেষ্টই ক্ষোভ প্রকাস করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ১৯ বছরের মেয়েকে আচ্ছন্ন করে ৪০ বছরের ওই ব্যক্তি ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

নির্যাতিতার বয়ান অনুযায়ী দিন কয়েক ধরেই সর্দি আর কাশিতে ভুগছিলেন তিনি। বাবার কাছে সর্দির ওষুধও চেয়েছিলেন।অভিযোগ তাঁকে কাফসিরাপের বদলে ঘুমের ওষুধ দেওয়া হয়। সেই ওষুধ খেয়েই ঘুমিয়ে পড়ে মেয়েটি। পরের দিন সকালে তাঁর যখন ঘুম ভাঙে তখন তিনি দেখতে পান পাশেই  শুয়ে রয়েছে বাবা।তাঁর পোষাক ছিল অবিন্যস্ত। সেই সময়ই তিনি বুঝতে পেরেছিলেন তাঁকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছে। নির্যাতিতা তরুণীর অভিযোগ, গত ২৩ জুন রাতেই তাঁকে  ধর্ষণ করা হয়েছে। 


নির্যাতিতা তরুণী সাহায্যের আর্জি নিয়ে হাত বাড়িয়েছিল তাঁর সৎমায়ের কাছে। অভিযোগ সেই মহিলা কোনও রকম সাহায্য করতে রাজি হননি। উল্টে নির্যাতিতা সৎমেয়েখকে বলেছিল বিষয়টা নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করতে না। পুলিশের কাছে গেলে ফল ভালো হবে না বলেও হুমকি দিয়েছিল। 

পাকিস্তানে আইএসআই 'ছত্রছায়ায়' রয়েছে সাজ্জিদ মীর, মার্কিন রিপোর্টে অস্বস্তি বাড়ছে ইমরানের

এরপরই নির্যাতিতা একাধিকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলেই জানিয়েছে। সবশেষে নির্যাতিতা শৌচাগার পরিষ্কার করার সামগ্রী খায়। পাশাপাশি দ্বারস্থ হয় পুলিশের। বর্তমানে পুলিশের উদ্যোগেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নির্যাতিতা। সেখানেই তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে নির্যাতিতার বাবাকে। 

'ভারতীয় ভূখণ্ড গ্রাস করছে চিন', সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে অভিযোগ বিজেপি নেত্রীর ..

বেঙ্গালুরুর এই ঘটনা সামনে আসার পর আবার প্রশ্নের মুখে  পড়েছে দেশের নারী নিরাপত্তা। বেঙ্গালুরুর এই ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে মহিলা শুধু বাইরে নয় ঘরেও নিরাপদ নন। গার্হস্থ্য হিংসার স্বীকার হতে হচ্ছে দেশের অসংখ্য মহিলাদের। 

'ভারতের ইতিহাস চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে শিখিয়েছে ',২০২০ নিয়ে অবসাদ কাটাতে দাওয়াই মোদীর ...