উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ মায়াবতীর তোপের মুখে পড়লেন রাহুল গান্ধী। শনিবার শ্রীনগরে প্রবেশ করার চেষ্টা করেছিলেন রাহুল গান্ধী-সহ কংগ্রেসের অন্যান্য নেতারা। এদিন তাই রাগা-সহ কংগ্রেসের সেইসব নেতা যাঁরা শনিবার জম্মু ও কাশ্মীরে প্রবেশ করতে চেয়েছিলেন তাঁদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মায়াবতী। 

পাকিস্তানের হাঁড়ির হাল, সরকারি মিটিং-এ চা-বিস্কুটও বন্ধ

এদিন নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একাধিক টুইট করে মায়াবতী বলেন, বিরোধীদের সেখানে যাওয়ার ফলে কেন্দ্র বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি করার একটা সুযোগ পেয়ে গেল। তিনি আরও বলেন, কাশ্মীর সফরে যাওয়ার আগে বিরোধী দলের এই বিষয়ে আরও একবার ভাবা উচিত ছিল।  এই মুহূর্তে, কেন্দ্রের অনুমতী ছাড়া কাশ্মীর যাওয়ার সিদ্ধান্তও একেবারেই ঠিক হয়নি বলে জানান মায়াবতী। 

উপত্যকায় নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়ি ভেবে পাথর ছুঁড়ল বিক্ষোভকারী, ঘটনায় নিহত ট্রাক চালক

তাঁর এদিনের টুইটে স্বভাবতই স্পষ্ট যে, জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের যে সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকার নিয়েছে তাতে স্বভাবতই সম্মতি রয়েছে বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী মায়াবতীর। বর্ষীয়ান এই নেত্রী আরও বলেন যে, ভিমরাও আম্বেদকর কিন্তু দেশের ঐক্য-সাম্য এবং  অখণ্ডতায় বিশ্বাসী ছিলেন, আর সেইকারণেই তিনি ৩৭০ ধারার পক্ষে ছিলেন না। আর সেই কারণেই ৩৭০ ধারা বাতিলের বিষয়টিকে বহুজন সমাজ পার্টি সমর্থন করে।

জি-৭ সম্মেলনে নরেন্দ্র মোদী, উঠে আসতে পারে কাশ্মীর প্রসঙ্গ

লাগু হওয়ার ৬৯ বছর পরে বাতিল করা হল জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী সংবিধানের ৩৭০ ধারা। তাই সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে আরও কিছুদিন সময় প্রয়োজন, সেই কারণে কিছু সময়ে ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করা ভাল বলে মনে করেন মায়াবতী।