একে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা, তার সঙ্গে ঘন কুয়াশার আস্তরণ। দুইয়ের জাঁতাকলে রীতিমতো নাজেহাল অবস্থা দিল্লিবাসীর। পরিস্থিতি এতটাই মারাত্মক আকার ধারণ করেছে যে লাল সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। কুয়াশার দাপটে রবিবার রাতেই গ্রেটার নয়ডায় মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনার বলি হয়েছেন দু'টি শিশু- সহ ছ' জন। 

সোমবার সকাল থেকেই ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা ছিল দিল্লি, নয়ডা- সহ বিস্তীর্ণ এলাকা। বেলা বাড়তেও কুয়াশার দাপট কমেনি। ফলে রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় গাড়ির লম্বা লাইন পড়ে যায়। কুয়াশার দাপট এতটাই ছিল যে এক সময় সংসদ ভবনও ঢাকা সম্পূর্ণ ঢাকা পড়ে যায়। দৃশ্যমানতা একেবারে কমে যাওয়ায় বাতিল হচ্ছে পরের পর বিমান। অন্তত তিরিশটি ট্রেন দেরিতে চলছে বলে খবর। 

আরও পড়ুন- ঠান্ডায় শরীর সুস্থ রাখতে, পাতে রাখুন এই পাঁচ উপাদান

আরও পড়ুন- নতুন বছরে চাই স্পেশ্যাল কেয়ার, রইল পুরুষদের কিছু বিশেষ টিপস

কুয়াশার সঙ্গেই তীব্র ঠান্ডাতেও নাজেহাল দিল্লিবাসী। অধিকাংশ জায়গাতেই তাপমাত্রা দুই থেকে তিন ডিগ্রির মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। সফদরজংয়ে তাপমাত্র নেমে যায় ২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। পালামে তাপমাত্রা ছিল ২.৯ ডিগ্রি। অভিজাত লোধি রোড এলাকায় তাপমাত্রা নামে ২.২ ডিগ্রিতে, আয়া নগরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২.৫ ডিগ্রি। 

এই পরিস্থিতিতে সোমবার দিল্লির জন্য লাল সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, সারাদিনই ঘন থেকে অতি ঘন কুয়াশার দাপট থাকবে দিল্লিতে। রাজধানীর অধিকাংশ জায়গাই শৈত্যপ্রবাহের কবলে পড়বে। মঙ্গলবার পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি হতে পারে। 

তবে শুধু দিল্লি নয়, গোটা উত্তর ভারতই প্রবল শীতে কাঁপছে। অমৃতসরে তাপমাত্রা নেমে হয়েছে ২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগ্রায় তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ২.৪ ডিগ্রিতে। ঝাঁসির তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বারাণীসতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৪.২ ডিগ্রি। 

ঘন কুয়াশার দাপটে রবিবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ গ্রেটার নয়ডায় খালে গিয়ে পড়ে একটি গাড়ি। দৃশ্যমানতা কম থাকাতেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। ঘটনায় দু'টি শিশু- সহ মোট ছ' জনের মৃত্যু হয়েছে। গাড়িটিতে মোট এগারোজন যাত্রী ছিলেন বলে সংবাদসংস্থার খবর।