মধ্যপ্রদেশের গুণার এক কৃষক দম্পতির ওপর চড়াও হয় পুলিশে। প্রকাশ্যে দম্পতিকে প্রবল মারধর করে। আর সেই ভিডিওই বর্তমানে ভাইরাল দেশে। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই নেটিজেনদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে শিবরাজ শিং চৌহান সরকারকে। 

মধ্যপ্রদেশ সরকারের দাবি, জমটি সরকারের। দীর্ঘদিন ধরেই অবৈধ জবরদখল করেছিল এক কৃষক দম্পতি। মডেল কলেজ তৈরির জন্য জমি খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে কোনও কাজ হয়নি। নোটিশ পাঠানো সত্ত্বেও জমিতে দেদার চাষাবাদ করে যাচ্ছিলেন দম্পতি। তারপরই জমি জবরদখল মুক্ত করতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। অভিযোগ সেই সময় সরকারি কাজে বাধা দেয় দলিত কৃষক দম্পতি। তারপরই পুলিশ প্রকাশ্যে বেধড়ক পেটাতে থাকে দম্পতিকে। স্থানীয়দের অভিযোগ ক্ষেতে ফলস থাকা সত্ত্বেও পুলিশ জমির ওপর দিয়ে বুল্ডোজার চালিয়ে দেয়। আর সেই সব হারানো দৃশ্য দাঁড়িয়ে দাড়িয়ে দেখতে বাধ্য করা হয় দম্পতি ও তাদের সন্তানদের। এরপর কৃষক দম্পতি পুলিশের সামনেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।  বর্তমানে স্থানীয় একটি সরকারি হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা চলছে। 

চুসুলে ১৫ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে প্যাংগং লেকের ওপর জোর, ইতিমধ্যেই সেনা সরিয়েছে চিন ...

'করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচাতে পারে একমাত্র ভগবান' স্বাস্থ্য মন্ত্রীর মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক ...

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই আসরে নেমে কংগ্রেস ও বিএসপি। কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী বলেন আমাদের লড়াই এই মানসিকতা ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে। ভিডিওটি শেয়ারও করেছেন রাহুল গান্ধী। 


এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বিএসপি মায়াবতী। 

করোনা মহামারীর পর স্বস্তি ফিরছে ড্রাগন অর্থনীতিতে, কতদিন তা স্থায়ী হবে তা নিয়ে রয়েছে চিন্তার মেঘ ...