বাড়তে চলেছে  আইআইটিতে পড়ার খরচ। এম টেকের খরচ বৃদ্ধি পেতে  চলেছে প্রায় ৯০০ শতাংশ, যা বিটেক পড়ার সমতুল্য। সিদ্ধান্ত নিল আইআইটি কাউিন্সল। বর্তমানে দেশের আইআইটিগুলিতে এমটেকের ভর্তি ও টিউশন ফি প্রতি সেমিস্টারে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা। ভবিষ্যতে এই খরচ বেড়ে বার্ষিক প্রায় ২ লক্ষ টাকা হতে চলেছে। 

এতদিন গ্র্যাজুয়েট অ্যাপটিটিউড টেস্ট ইন ইঞ্জিনিয়ারিং বা গেটের নম্বরের ভিত্তিতে এমটেকে ভর্তি হওয়া পড়ুয়ারা প্রতিমাসে ১২,৪০০ টাকা ভাতা পেতেন। সেই সুযোগও এবার বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। আইআইটি কাউন্সিলের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল। তিনি 'টেনার ট্র্যাক পাথওয়ে' নামে একটি প্রস্তাবকে শিলমোহর দিয়েছেন। এর ফলে যেসব অধ্যাপক বর্তমানে বিভিন্ন আইআইটি-তে পড়াচ্ছেন, তাঁদের প্রতি ৫ বছর অন্তর রিভিউ প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। এইসব অধ্যাপকদের মধ্যে যাদের কাজ পছন্দ হবে না তাঁদের প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেওয়া হতে পারে। আর যারা উত্তীর্ণ হবেন তাঁদের পদোন্নতি করা হবে। 

বর্তমানে আইআইটি-মুম্বইতে সেমিস্টার পিছু টিউশন ফি ৫ হাজার টাকা, অন্যদিকে আইআইটি দিল্লিতে প্রতি সেমিস্টার পড়তে লাগে ১০হাজার টাকা। আইআইটি মাদ্রাজে  প্রতি সেমিস্টার পড়তে খরচ হয় ৫ হাজার টাকা, তারসঙ্গে এককালীন দিতে হয় ৩,৭৫০ টাকা। আইআইটি খড়গপুরের ক্ষেত্রে প্রথম সেমিস্টারের খরচ ২৫,৯৫০ টাকা, সঙ্গে ফেরতযোগ্য ফি ৬ হাজার টাকা। পরবর্তী সেমিস্টারগুলিতে দিতে হয় ১০,৫৫০ টাকা। বর্তমানে দেশে ২৩টি আইআইটি রয়েছে, এরমধ্যে ৭টি পুরনো আইআইটিতে এমটেক ছাত্রের সংখ্যা ১৪ হাজার।

ফি বৃদ্ধির টাকা কলেজগুলির উন্নয়নের কাজে খরচ করতে চাইছে আইআইটি কাউন্সিল। অতিরিক্ত টাকা ব্যাঙ্কগুলি থেকে লোন হিসাবে নিতে পারবেন পড়ুয়ারা।