স্বামী বোরওয়েল পাম্পের মিস্ত্রি। যত্রতত্র ঘুরে বেড়াতে হয়। অধিকাংশ সময়ই ঘরের বাইরে। আর স্বামীর অবর্তমানেই অন্য এক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে স্ত্রী। নয় বছরের ছেলে জানতে পারে মা-এর এই বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা। কিন্তু, মা-কে সে কথা বলতেই প্রাণ সংশয় হবে তা হয়তো ঠাহর করতে পারেনি সে। পরিণাম যা হওয়ার ছিল তাই হল। নিজের প্রেমের কথা গোপন রাখতে ছেলেই খুন করে বসল মা। আপাতত তার স্থান শ্রীঘরে। মর্মান্তিক এই ঘটনা তেলেঙ্গানায়। 

আরও পড়ুনঃ ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনে ইন্দো-ওয়ের্স্টানে মাত করলেন, মুর্শিদাবাদ সিল্কে সাজলেন ইভাঙ্কা

জানা গিয়েছে, তেলেঙ্গানার নালগোন্ডা জেলায় এই ঘটনা। বছর তিরিশের সেই মা-এর নাম-পরিচয় অবশ্য প্রকাশ্যে আনা হয়নি। পুলিশ সূত্রে খবর, মা-এর বিবাহ বহির্ভূত প্রেমের কথা জানতে পারে নয় বছরের ছেলে। এরপর থেকেই সে মা-কে হুমকি দিত। যে পুরুষের সঙ্গে ওই বিবাহিত মহিলার সম্পর্ক রয়েছে তিনি পরিবারের-ই একজন বলে পুলিশ জানিয়েছে। নয় বছরের ছেলে পুরো ঘটনা বাবা-কে জানানোর জন্য নানা সময়ে মা-কে চাপ দিত বলেও অভিযোগ। 

আরও পড়ুনঃ মোদীর সঙ্গে ব্যস্ত ট্রাম্প, দিল্লির স্কুলে কচিকাঁচাদের সঙ্গে 'হ্যাপিনেস ক্লাস' মেলানিয়ার

এই নিয়ে ছেলে-কে বকাবকিও করতেন ওই মা। বাবা-কে বললে পরিণাম ভালো হবে না বলেও নাকি মা ধমক দিত। কিন্তু, এতেও নয় বছরের ছেলে দমেনি। শেষমেশ নিজের প্রেমকে গোপন রাখতে মা নাকি ছেলে-কে খুনের সিদ্ধান্ত নেন। পরিকল্পনা মতো শনিবার ছেলে-কে গলায় টাওয়াল পেচিয়ে হত্যা করে মা। 

আরও পড়ুনঃ দিল্লি হিংসায় রাজধানীতে কড়া নিরাপত্তা আটক বন্দুক উঁচিয়ে যাওয়া যুবক.

রাতে বাড়ি ফিরে আসেন ওই মহিলার স্বামী। তিনি একটি বোরওয়েল ফার্মে কাজ করেন। সেদিন কাজ সেরে বাড়ি ফিরে আসেন তিনি। বাড়ির ভিতর থেকে নিথর ছেলের দেহ উদ্ধার করেন। কীভাবে ছেলের মৃত্যু হল এই নিয়ে স্ত্রী-র সঙ্গে বচসা হয়। পুরো ঘটনা তিনি পুলিশ-কে জানান। এরপরই পুলিশ দেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মা-কে নিয়ে যায় পুলিশ। যানায় জিজ্ঞাসাবাদে একাধিক অসঙ্গতি ধরা পড়ে। শেষমেশ চাপে পড়ে অভিযুক্ত মা-স্বীকার করে যে সে ছেলে-কে খুন করেছে। কারণ হিসাবে তার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ককেই দায়ী করেছে ওই মহিলা। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।