নতুন সরকার গঠনের পর নরেন্দ্র মোদী সরকার পার করে ফেলেছে ১০০ দিন। আর এই ১০০দিনের মাথায় একেবারে ফিল্মি মুডে নরেন্দ্র মোদী। এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের ১০০ দিন উপলক্ষ্যে নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন, এতদিন সরকার যা করেছে যা কেবলমাত্র 'ট্রেলার' ছিল, গোটা ছবিটা আগামী কয়েক বছরে প্রকাশ্যে আসবে। 

এদিন ঝাড়খণ্ডের রাচিতে একটি নির্বাচনী প্রচারে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি ঝাড়খণ্ডের কৃষক এবং ছোট ব্য়বসায়ীদের পেনশন প্রকল্প শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেইসঙ্গে রাচীর জগন্নাথপুর ময়দানে একটি জনসভায় বক্তব্য়ও রাখেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে গিয়ে তিনি বলেন, 'নির্বাচনের আগে আমি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম যে, একটি শক্তিশালী এবং কর্মমুখী সরকার গঠন করব। এমন এক সরকার, যা আগের থেকেও বেশি গতিতে কাজ করবে এবং সারা দেশের প্রত্যাশা পূরণ করার জন্য লড়াই করবে। সরকারের ১০০ দিন কেবলমাত্র ট্রেলার ছিল, পুরো সিনেমা এখনও বাকি আছে।'

এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও দাবি করেন যে, তাঁর সরকার দেশের সার্বিক উন্নয়ন এবং দেশকে যারা লুঠ করছে তাদের শাস্তি দেওয়ার জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। তিনি আরও বলেন যে, উন্নয়ন আমাদের প্রতিশ্রুতি এবং লক্ষ্যও অবশ্যই। তবে এখনকার মতো দ্রুত উন্নয়ন দেশ কিন্তু আগে দেখেনি। একইভাবে যারা দুর্নীতির ওপর আঘাত হানছে এবং যারা সাধারণ মানুষকে লুঠ করছে তাদের সঠিক জায়গায় পাঠানো হবে। 

 

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের প্রতিবাদের জের, পুজোর মুখেই ধর্মঘটের ডাক

ফোনে স্বামীর সঙ্গে গল্পে মগ্ন, সঙ্গমরত দুটি সাপের ওপর বসে পড়লেন স্ত্রী, তারপর...

উৎসবের মেজাজে বিষাদের সুর, গণেশ বিসর্জনে নৌকোডুবিতে মৃত ১১

পাশাপাশি রাচির নয়া বিধানসভা ভবনেরও উদ্বোধন করেন নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি সেখানে পেনশন প্রকল্প চালু করে মোদী বলেন, এই প্রকল্পে দেশ জুড়ে ছোট ব্যবসায়ী এবং চাষীরা প্রতি মাসে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশন পাবেন বলে জানান তিনি।