কৃষকদের টাকা নিয়ে দুই সরকারের একে অপরকে চিঠি। মমতা বন্দ্যাপাধ্যায় কৃষকদের ভাতা-র টাকা নিয়ে চিঠি লিখলেন প্রধানমন্ত্রীকে। আবার কৃষকদের তথ্য চেয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখলেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। দিদিকে লেখা চিঠিতে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী লিখেছেন, " বিধানসভা নির্বাচনে জয়ের জন্য আপনাকে অভিনন্দন। পশ্চিমবাঙলার মানুষদের এখনও প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি যোজনার সুবিধা পাচ্ছেন না। আমি এর আগেও অনেকবার আপনাকে অনুরোধ করেছিলাম যে রাজ্যের ৬৯ লক্ষ কৃষক পরিবার পিএম কিষাণ সম্মান যোজনার সুবিধা থেকে বঞ্চিত। যদি রাজ্য সরকার এই যোজনার অন্তর্ভুক্ত হয় তাহলে কৃষকদের কাছে প্রায় মোট ৯৬৬০ কোটি টাকার যোজনার সুবিধা পৌঁছে যাবে।

আরও পড়ুন: যোগী রাজ্যে বাজেয়াপ্ত ২০ কেজি রসগোল্লা, কিন্তু কেন

পশ্চিমবঙ্গে কৃষকদের ওপর তথ্য চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যাপাধ্যায়কে লেখা চিঠিতে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর এরপর লেখেন, রাজ্য সরকার কৃষকদের নিয়ে তথ্য না দিলেও পশ্চিমবাঙলার প্রায় ৪১ লক্ষ কৃষক পিএম কিষাণ পোর্টালের মাধ্যমে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করেছেন। বিধানসভা নির্বাচনের কিছুদিন আগে রাজ্য নোডাল অফিসার নিযুক্ত করা হয়েছিল কিন্তু আদর্শ নির্বাচন বিধি লাগু হওয়ায় কাজ স্থগিত হয়ে যায়।" তাই তিনি ফের রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করছেন যাতে রাজ্য সরকার এই যোজনার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত হয়ে রাজ্যের কৃষকদের পাশে দাঁড়ায়।

আরও পড়ুন: হাসপাতালের বেড থেকে ওষুধ- টিকাকরণ, পরিস্থিতি পর্যালোচনায় প্রধানমন্ত্রী

এদিকে, কৃষকদের দেওয়া নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন মমতা। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সেই চিঠিতে লেখেন, "আপনি রাজ্যে বারবার এসে আপনি কৃষকদের বলেছেন, প্রত্যেক কৃষককে ভাতা হিসেবে ১৮ হাজার করে টাকা দেওয়া হবে। কিন্তু এখনও রাজ্যের কোনও কৃষক সেই ভাতা পাননি। তাই আমি অনুরোধ করছি যত দ্রুত সম্ভব পিএম কিষাণ প্রকল্পের আওতায় থাকা কৃষকদের টাকা দেওয়া হোক ও ২১ লক্ষ ৭৯ হাজার কৃষকের তথ্য প্রকাশ করা হোক"।