কাফে কফি ডে-র কর্ণধার ভিজি সিদ্ধার্থ-এর মৃত্যুর এক মাস কাটতে না কাটতেই মারা গেলেন তাঁর বাবা গঙ্গাইয়া হেগড়ে। সূত্রের খবর দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি। রবিবার শান্থাভেরি গোপাল গৌড় হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাঁর আত্মীয়-স্বডজনের তরফে পাওয়া খবর, সোমবার চিকমাগলুর-এ তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে তাঁর। 

শেষ মুহূর্তে কী চলছিল সিদ্ধার্থ-এর মাথায়, কেন নিলেন এমন সিদ্ধান্ত - মনোবিদরা কী বলছেন

উদ্ধার হল সিসিডি-র প্রতিষ্ঠাতা সিদ্ধার্থের দেহ, পরিবারকে খবর দিল পুলিশ

এক মাসও কাটে নি তাঁর ছেলের রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয়েছিল। ২৯ জুলাই থেকে নিখোঁজ ছিলেন কাফে কফি ডে-র কর্ণধার ভিজি সিদ্ধার্থ। এরপর ৩১ জুলাই  নেত্রবতী নদী থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত্যুর আগে একটি চিঠিতে তিনি লিখে রেখে গিয়েছিলেন যে, অনেক চেষ্টার পরেও সংস্থার আর্থিক অবস্থা ফেরাতে ব্যর্থ হয়ে এবং আয়কর দফতরের তরফ থেকে আসা ক্রমাগত চাপ সামলে উঠতে না পারায় আত্মহননের পথ বেছে নেওয়াই শ্রেয় বলে মনে করেছিলেন বিখ্যাত কফি চেইন-এর কর্ণধার ভিজি সিদ্ধার্থ।

শান্ত উপত্যকায় চালু হচ্ছে ল্যান্ডলাইন পরিষেবা, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার আশ্বাস দিলেন রাজ্যপাল

মুর্খের রাজ্যে বাস করে আগুন নিয়ে খেলছে ভারত, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতকে খোঁচা পাক রাষ্ট্রপতির

সূত্রের খবর, প্রায় ১৩০ বছর ধরে পারিবারিক কফি ব্যবসার ঐতিহ্য টিকিয়ে রেখেছিল এই পরিবার। সূত্রের খবর, কর্ণাটকের চিকমাগালুর জেলায় একটি এস্টেটে কফি প্লান্টার হিসাবে প্রথম শুরু করেছিলেন ভিজি সিদ্ধার্থ-এর বাবা গঙ্গাইয়া হেগড়ে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে ব্যবসায়ে এসেছিল সাফল্য, স্থানীয় এলাকায় রাতারাতি পরিচিতিও পেয়েছিলেন তিনি।