ফের লকডাউনের রাস্তায় ফিরছে মহারাষ্ট্রের নাগপুর শহর। আগামী, ১৫ থেকে ২১ মার্চ - এই একসপ্তাহ মহারাষ্ট্রের এই শহরে প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলি ছাড়া অন্য সব পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে, বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে নাগপুর শহর কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি এই শহরে ফের করোনাভাইরাস মহামারির দাপট বেড়েছে। তারপরই এই পদক্ষেপ নেওয়া হল। মুম্বই, পুনে ও নাসিকের পাশাপাশি নাগপুরই মহারাষ্ট্রের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চল। বর্তমানে এই রাজ্যের মধ্যে দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যায় সবার আগে রয়েছে এই শহরই।

বুধবার, দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা নিবন্ধিত করেছে মহারাষ্ট, ১৩,৬৫৯ (দেশের মোট নিবন্ধিত কোভিড মামলার প্রায় ৬০ শতাংশ)। এরমধ্যে নাগপুরে নিবন্ধিত হয়েছে নতুন ১,৫১৩ জন রোগীর নাম। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকেই নাগপুরে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ফের বাড়তে শুরু করেছিল। আর গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নাগপুরের দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ১০০০ অতিক্রম করেছিল। সেই সময়ই স্কুল, কলেজ, সুইমিং পুল এবং সাপ্তাহিক বাজার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল সরকার।

তবে শুধু মহারাষ্ট্রে নয়, ভারতে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা যাচ্ছে - কেরল, পঞ্জাব, কর্ণাটক, গুজরাত এবং তামিলনাড়ু রাজ্যেও। এই ৫ রাজ্য থেকে গত ২৪ ঘন্টায় দেশের প্রায় ২৬ শতাংশ নতুন সংক্রমণের ঘটনা নিবন্ধিত করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি  এবং হরিয়ানাতেও।