আগামী ২২ জানুয়ারি তিহার জেলে নির্ভয়াকাণ্ডের চার আসামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে। তার মধ্যেই উঠে এল এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। নক্কারজনক এই অপরাধে দোষী সাব্যস্ত চার জনই দীর্ঘ সময় জেলে কাটিয়েছে। জেলের মধ্যেও এর যে নিয়ম মেনে চলেছে তেমনটা কিন্তু নয়। জেলের মধ্যে ২৩ বার নিয়ম ভেঙেছে এই চার অপরাধী। 

দেখুন ভিডিও: মকর সংক্রান্তিতে আকাশে উড়ল ঘুড়ি, কোনারকের সৈকতে উত্তরায়ণের আসর

তিহার জেলে অক্ষয় ঠাকুর, মুকেশ সিং, পবন গুপ্তা ও বিনয় শর্মা ৭ বছরে মোট ২৩ বার নিয়ম ভেঙেছে, এমনটাই বলছে সূত্র।  চার অপরাধীর কারও মধ্যেই নিজের কৃতকর্মের জন্য অনুশোচনাও কেউ কখনও দেখেননি। এদের মধ্যেই অক্ষয় ঠাকুর নিয়ম ভেঙেছে একবার। মুকেশ সিং-এর ক্ষেত্রে নিয়ম ভাঙার সংখ্যা তিন। আর পবন গুপ্তা নিয়ম ভেঙেছ ৮ বার। তবে সবচেয়ে বেশি মোট ১১ বার নিয়ম ভেঙেছে বিনয় শর্মা।

দেখুন ভিডিও: পৌষ সংক্রান্তিতে টুসু উৎসবে মাতল বিষ্ণুপুর, চৌ ডাল সাজিয়ে চলল নাচ-গান

তিহার জেল কর্তৃপক্ষে তরফ থেকে জানা গিয়েছে, দিল্লিকাণ্ডের চার ধর্ষক গত ৭ বছরে মোট ১,৩৭,০০০ টাকা উপার্জন করেছে। যার মধ্যে অক্ষয়ের উপাজর্নের পরিমাণ ৬৯ হাজার টাকা। পবনের ক্ষেত্রে পরিমাণ ২৯ হাজার টাকা। বিনয় রোজগার করেছে ৩৯ হাজার টাকা। তবে মুকেশ এই সাত বছরে কোনও কাজই করতে চায়নি জেলে।

সূত্রের খবর, গত সাত বছরে নির্ভয়ার ধর্ষকদের কোনও অনুশোচনা কেউ কোনও দিন দেখেনি। ২০১৬ সালে মুকেশ, পবন ও অক্ষয় তিনজনে দশম শ্রেণির পরীক্ষায় বসলেও পাস করতে পারেনি। বিনয় ২০১৫ সালে স্নাতক হওয়ার জন্য ভর্তি হলেও কোর্স শেষ করতে পারেনি।