Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Rajya Sabha: মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব খারিজ, উত্তপ্ত রাজ্যসভা ছাড়লেন বিরোধীরা

রাজ্যসভা থেকে ওয়াকআফট করেন কংগ্রেস সাংসদরা। তারপরই বাম ওবেশ কয়েকটি ছোট দলের সাংসদরা রাজ্যসভার অধিবেশ ত্যাগ করে বেরিয়ে যায়। 

opposition mp walk out after rajya sabha deputy chairman rejects proposal to discuss inflation bsm
Author
Kolkata, First Published Dec 2, 2021, 3:05 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সংসদের শীতকালীন অধিবশনের (Parliament winter session) চতুর্থদিনেও উত্তপ্ত রাজ্যসভা (Rajya Sabha)। এদিনও বিরোধী দলের সাংসদরা ওয়াকআউট  (Opposition Walk Out) করেন। বৃহস্পতিবার কংগ্রেসসহ (Congress) বিরোধী রাজনৈতিক দলের সাংসদরা মুদ্রাস্ফীতি, মূল্যবৃদ্ধি ও কৃষকদের বিষয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছিলেন রাজ্যসভায়। কিন্তু বিরোধী রাজনৈতিক দলের সাংসদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ। তারপরই বিরোধীরা অধিবেশন ছেড়ে বেরিয়ে যান। 

এদিন রাজ্যসভা থেকে ওয়াকআফট করেন কংগ্রেস সাংসদরা। তারপরই বাম ওবেশ কয়েকটি ছোট দলের সাংসদরা রাজ্যসভার অধিবেশ ত্যাগ করে বেরিয়ে যায়। তারপরেই অধিবেশনে তৃণমূল কংগ্রেস. টিআরএস, ডিএমকে ও আরও কয়েকদল কৃষকদের ইস্যুতে আলোচনা করার প্রস্তাব দেয়। কিন্তু রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান সেই প্রস্তাবও খারিজ করে দেন। তারপরই সংশ্লিষ্ট দলগুলি রাজ্যসভার অধিবেশন ত্যাগ করে।

BJP: লক্ষ্য ৫০০ সংখ্যালঘু ভোট, গোয়া জয়ে নতুন কৌশল গেরুয়া শিবিরের

Expensive City: বিশ্বের সবথেকে দামি শহর তেল আভিভ, সস্তা শহরের তালিকায় রয়েছে ভারত

Heron Drone: ভারতের হাতে হেরন ড্রোন, পূর্ব লাদাকে লাল ফৌজের ওপর নজরদারিতে শক্তিবৃদ্ধি

যাইহোক বর্তমানে মুদ্রাস্ফীতি ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি গোটা দেশেই একটি জ্বলন্ত সমস্যা। সম্প্রতি জ্বালানি তেলের দাম কিছুটা কমিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাতে কিছুটা হলেও করেছে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। কিন্তু এই দাম এখনও দরিদ্র মানুষের ধরা ছোঁয়ার বাইরে। কংগ্রেসসহ একাধিক রাজনৈতিক দল বিষয়টি সংসদে তুলবে বলে আগে থেকেই ঘোষণা করেছিল। কিন্তু এদিন তা তোলা হলেও আলোচনার সুযোগ দেওয়া হয়নি। যা নিয়ে রীতিমত ক্ষুব্ধ বিরোধী রাজনৈতিক দলের সাংসদরা।  

বিরোধী নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে জানিয়েছেন মুদ্রাস্ফীতি ও মূল্যবৃদ্ধি এই দুটি বিষয় নিয়ে তিনি আলোচনা করতে চেয়েছিলেন। দুটি বিষয়েই অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেগুলি সংসদে আলোচনা হওয়া জরুরি ছিল। কিন্তু ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ বলেন প্রশ্নোত্তর পর্ব চালু থাকায় সেগুলি নিয়ে আলোচনা করা যাবে না। তারপরই তৃণমূলসহ বেশ কয়েকটি দল কৃষকদের সমস্যা নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব দিলে তাও খারিজ হয়ে যায়। তারপরই বিরোধীরা রাজ্যসভার অধিবেশন ছেড়ে বেরিয়ে যায়। সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরুর পর থেকে এই নিয়ে পরপর তিন চার দিন ব্যহত হয় রাজ্যসভার অধিবেশন। 

এর আগে বিরোধী দলে ১২ জন সাংসদকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। তার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয় বিরোধী দলের সাংসদরা। দফায় দফায় মুলতবি হয়ে যায় রাজ্যসভার অধিবেশন। ব্যহত হয় সভার কাজকর্ম। যদিও রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বহিষ্কৃত সংসদদের ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেন। কিন্তু তারও বিরোধিতা করে বিরোধীরা। তাদের কথায় তারা কোনও অন্যায় করেনি, তাই ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নও নেই। এই ঘটনার পর থেকে বহিষ্কৃত সাংসদরা সংসদে গান্ধী মূর্তির কাছে অবস্থান বিক্ষোভে বসেছেন। বিরোধী সাংসদদের কথায় তাঁরা ধর্না অবস্থান চালিয়ে যাবেন। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios