সেনাবাহিনী প্রধান বিপিন রাওয়াত জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ন্ত্রণ রেখার দুটি জেলা পুঞ্চ ও রাজৌরি জেলা পরিদর্শনের এক দিন পরেই সেখানে ফের নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করল পাকিস্তানি সেনা। এর জেরে রবিবার এক সেনা জওয়ানের নিহত হয়েছেন। 

প্রশাসনিক সূত্রে খবর, নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় মর্টার ছুঁড়ে এবং ছোট আগ্নেয়াস্ত্র চালানোর মাধ্যমে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি সেনারা।  আর এর জেরেই রবিবার একজন ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পুঞ্চ সেক্টরের শাহপুর-কেরনি এলাকায়ে গোলাবর্ষণের জেরেই ওই ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছে। প্রসঙ্গত চলতি বছরের পয়লা জুলাইয়ের পর থেকে পুঞ্চ ও রাজৌরি জেলায় এখনও পর্যন্ত এই নিয়ে ছয় জন সেনা জওয়ানের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছিল। 

তবে রবিবারের ঘটনায় যে ভারতীয় সেনা শহিদ হলেন তিনি হলেন গ্রেনেডিয়ার হেম রাজ জাঠ। প্রতিরক্ষা বিভাগের জনসংযোগ আধিকারির লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেবেন্দ্র আনন্দ জানিয়েছেন, ২৩ বছরের এই জওয়ান অত্যন্ত সাহসী সৈন্য ছিলেন, তাঁর এত বড় আত্মত্যাগের জন্য এই জাতি তাঁকে মনে রাখবেন। 

কাবুলে ফের আত্মঘাতি বোমা হামলা, ঘটনার দায় স্বীকার তালিবান জঙ্গিদের

কার্গিলের কাছে বাঙ্কার বানাচ্ছে পাক সেনা, কাশ্মীর ইস্যুতে চাপ অব্যাহত

প্রসঙ্গত এর আগে রাজৌরি জেলার নওশেরা সেক্টরে নিয়ন্ত্রণ রেখায় পাক সেনার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের কারণে ২৩ অগাস্ট প্রাণ হারিয়েছেন ৩৪ বছরের নায়েক রাজীব থাপা, ৩৫ বছর বয়সী ল্যান্স নায়েক সন্দীপ থাপা শহিদ হয়েছেন ১৭ অগাস্ট। ২০ অগাস্ট তারিখে পুঞ্চ জেলায় প্রাণ হারিয়েছেন নায়েক রঞ্জক কুমার। তার আগে জুলাই মাসের ৩০ তারিকে নিহত হন নায়েক কৃষ্ণণ লাল, ২২ জুলাই শহিদ হয়েছিলেন রাইফেলম্যান মহম্মদ আতিফ সাফি পাঠান।