ফের ভারতের আকাশে সন্দেহভাজন পাক ড্রোনের অনুপ্রবেশ। পঞ্জাবের ফিরোজপুরে ভারত- পাক সীমান্তের কাছে এই ড্রোন দেখতে পাওয়ার পর থেকেই কড়া সতর্কতা নিয়েছে বিএসএফ। সন্দেহভাজন পাক ড্রোনের খোঁজেও শুরু হয়েছে জোর তল্লাশি। 

একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, পঞ্জাবের ফিরোজপুরের কাছে হুসেইনওয়ালা সীমান্তের কাছে এইচ কে টাওয়ারর নামে একটি চেক পোস্টের কাছে সোমবার রাত থেকে ড্রোনটিকে প্রথম উড়তে দেখা যায়। প্রায় পাঁচ বার ড্রোনটিকে সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় উড়তে দেখা গিয়েছে বলে সূত্রের দাবি। তার মধ্যে একবার সেটি সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের দিকে ঢুকে পড়ে বলেও অভিযোগ। রাত দশটা থেকে দশটা চল্লিশ পর্যন্ত প্রথমে ড্রোনটিকে একবার উড়তে দেখা যায়। তার পর ফের রাত বারোটা থেকে বারোটা পঁচিশ মিনিট পর্যন্ত ড্রোনটি ভারতীয় আকাশে ওড়ে। 

আরও পড়ুন- অস্ত্র বহনকারী ৪টি পাক ড্রোন লুকিয়ে রয়েছে পঞ্জাবে, জানাল বিশেষ তদন্তকারী দল

ড্রোনটি নজরে আসার পরেই শীর্ষ স্তরের আধিকারিকদের বিষয়টি জানান বিএসএফ জওয়ানরা। মঙ্গলবার সকাল থেকেই বিএসএফ, পঞ্জাব পুলিশ এবং অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থা সম্মিলিতভাবে ওই ড্রোনের খোঁজে তল্লাশি শুরু করে। পাকিস্তানের কোনও জঙ্গি সংগঠন ওই ড্রোনের মাধ্যমে ভারতে মাদক বা অস্ত্র পাঠিয়েছে কি না, মূলত সেটাই খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। 

মাত্র এক সপ্তাহ আগেই পঞ্জাবে এই ধরনের দু'টি ড্রোনের খোঁজ মিলেছিল। পঞ্জাব সরকারের দাবি ছিল, ওই ড্রোন দু'টির মাধ্যমে পাকিস্তান থেকে এ দেশে অস্ত্র পাঠানো হয়েছিল। তার আগে সাম্প্রতিক কালে চিনা ড্রোন ব্যবহার করে পাকিস্তান থেকে এ দেশে মাদক, জাল নোট বা অস্ত্র পাঠানোর একাধিক ঘটনা সামনে এসেছে। এর পরেই সীমান্তে বিএসএফ-কে আরও সতর্ক করা হয়েছে।