আগামী ২১ জুন 'বিশ্ব যোগ দিবস'। পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ওই দিনটিতে লাদাখের লেহতে অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। গত মার্চ মাসেই তা ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মহামারীর আকার নেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লেহ-র অনুষ্ঠানে যোগদান করা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আয়ুষ মন্ত্রকের তরফ থেকে জানান হয়েছে, যোগ দিবসের অনুষ্ঠানে কোন এলাকায় তিনি অংশ গ্রহণ করবেন তা এখনও স্থির হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ডিজিটাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মেও হতে পারে যোগ দিবসের অনুষ্ঠান। 

প্রতি বছরই যোগ দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মন্ত্রক সূত্রে খবর, আগেই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন লেহ-র অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করতে ইচ্ছুক তিনি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করা হচ্ছে।  তবে লেহর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী যদি যোগ না দেন তাহলে কোন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন? সেই বিষয়টি এখনও আলোচনায় চলছে বলেও জানান হয়েছে সূত্রের তরফে। 

ডনের ঘরে করোনার হানা, দাউদ দম্পতি ভর্তি করাচির সেনা হাসপাতালে ...

মমতার মুখে বঙ্গ আর দিলীপের মুখে পদ্ম, রাজ্যে কি শুরু হল 'মাস্ক রাজনীতি' ...

'আমি কখনও প্রধানমন্ত্রীকে সরে যেতে বলিনি', বিজেপির সমালোচনা করে মন্তব্য মমতার ..

একটি সূত্র দাবি করছে বিশ্ব যোগ দিবসের অনুষ্ঠান এবার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মেও হতে পারে। কারণ মূল অনুষ্ঠানটি একটি বড় ইভেন্ট। আর সেই ইভেন্টকে কেন্দ্র করে ভিড় বাড়াতে রাজি নয় সরকার। তাই সেই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের কথাই চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সরকারি আকিকারিকের বক্তব্য ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান হলে ভিড় যেমন এড়ানো যাবে তেমনই  করোনাভাইরাসে সংক্রান্ত স্বাস্থ্য বিধিও মানে চলা সম্ভব। 

সরকারি আধিকারিকের মতে চলতি বছর বিশ্ব যোগ দিবসের স্লোগান হতে পারে 'যোগা করুন বাড়িতে',   ' যোগা করুন পরিবারের সঙ্গে'। ২১ জুন সকাল ৭টা নাগাদ ভার্চুয়ালি যোগ দিবসের অনুষ্ঠান হতে পারে বলেও সূত্রের খবর।