প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে খড়গপুর আইআইটি-র ৬৬তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সৌরশক্তির ওপর জোর দিয়েছেন। সৌরবিদ্যুৎের গুরুত্ব ও আন্তর্জাতিক সৌরজোটের গুরুত্ব সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তিনি বলেন ভারত এটির সূচনা করেছিল, বর্তমানে ১২১টি দেশ যোগ দিয়েছে। 

কথা প্রসঙ্গে উত্তরাখণ্ডের পরিস্থিতিও উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন উত্তরাখণ্ডের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের থেকে শিক্ষা নিয়ে আইআইটিয়ানদের গবেষণা করতে বার করতে হবে দুর্যোগ মাকিবিলার একাধিক ব্যবস্থা। মানুষের জীবন বাঁচাতে ও দেশকে আত্মনির্ভর করতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে আইআইটিয়ানকে। আর সেই প্রসঙ্গে আত্ম সচেতন, আত্মবিশ্বাস আর নিঃস্বার্থতা- এই তিনটি মন্ত্র করে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। একই সঙ্গে আইআইটির সদস্যদের তিনি কঠোর পরিশ্রম করে নিজেদের সঙ্গে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওযার আর্জি জানিয়েছেন। 


প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন একবিংশ শতাব্দীর ভারতের পরিস্থিতিও বদলেছে। চাহিদা ও প্রত্যাশাও বদলেছে। এখন আইআইটিকে কেবল ভারতীয় প্রযুক্তির পীষস্থান নয়। দেশীয় প্রযুক্তি ইনস্টিটিউ হিসেবে এই প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে যেতে হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেন নতুন আবিষ্কারগুলি  দেশ জীবন ও সম্পদকে  রক্ষা করার দায়িত্ব তাদেরও গ্রহণ করতে হবে। এখান থেকেও বাণিজ্যিকভাবে লাভবান হওয়ার রাস্তা দেখতে হবে দেশকে। স্নাতকস্তরের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন এটি কেবল তাঁদের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ দিন নয়। এদিন ১৩০ কোটি ভারতীয় কাছেও অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন। আত্মনির্ভর ভারত গঠনে তাঁদের যোগদানের বিষয়েও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। 

ঘরে বসেই দেখে নিন লাল গ্রহের মাটির ছবি, রোভারের মাধ্যমে জীবনের খোঁজ চালাবে নাসা ...

করোনার পর ভারতের দিকে তাকিয়ে রয়েছে বিশ্ব, বেসরকারি সংস্থাকে অভিনন্দন মোদীর ...

খড়গপুর আইআইটির সমাবর্তন অনুষ্ঠানের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী ডক্তর শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সের অ্যান্ড রিসার্চ ও একটি এমবিবিএস প্রোগ্রামেরও উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।